মোশাররফ করিম

ঈদ মানেই মোশাররফ করিম। আর মোশাররফ করিম মানেই হাসির নাটক- এটা মানুষের হৃদয়ে গেঁথে গেছে। টিভি নাটকের জনপ্রিয় এই অভিনেতার একাধিক নাটক প্রচার হবে এবারের ঈদে। রায়হান খানের রচনা ও পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক 'মেডেল' ভিন্ন ধাঁচের একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এর পাশাপাশি তাকে দেখা যাবে সোহেল হাসানের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত 'অনাত্মীয় দম্পতি' নামের একক নাটকে। প্রতিবারের মতো এবারই বেশ কিছু নির্মাতার নাটকে নতুন চরিত্রে সব চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। তেমনই কিছু নাটকের তালিকায় আছে ইমরাউল রাফাতের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত 'তুলা মিন মকর', তাইফুর জাহান আশিকের রচনা ও পরিচালনায় 'উধাও' এবং রাকেশ বসুর পরিচালনায় নির্মিত নাটক 'অভিনেতা'। মোশাররফ করিমের কথায়, বিগত কয়েক বছরের নাটকগুলো থেকে এবার কিছুটা ভিন্ন ধাঁচের গল্প ও চরিত্র বাছাই করে কাজ করেছেন তিনি।



মেহজাবীন চৌধুরী

ক'দিন আগে মেহজাবীন সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন এই বলে যে, 'এবার ঈদে আমি কোনো নাটক করিনি।' তার এ কথা মিথ্যা নয়, কারণ করোনার জন্য অনেকদিন তিনি কোনো নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেননি। তার পরও এবার ঈদে তার বেশ কিছু নাটক ও টেলিছবি প্রচার হচ্ছে, যেগুলোর ঈদের পরিকল্পনা নিয়েই লকডাউনের অনেকে আগেই নির্মাণ করেছেন পরিচালকরা। তাই মেহজাবীন ভক্তদের উদ্দেশে বলেন, হতাশ হওয়ার কিছু নেই। তার ঈদের নাটক ও টেলিছবির তালিকায় রয়েছে- 'মি. এন্ড মিসেস চাপাবাজ আনলিমিটেড', 'ঘটনা সত্য', 'দ্বিতীয় সূচনা', 'কায়কোবাদ' 'চিরকাল আজ', 'প্লাস ফোর পয়েন্ট ফাইভ', 'যদি কোনো দিন' ইত্যাদি। এসব নাটক ও টেলিছবিতে দর্শক মেহজাবীনকে দেখবেন নানারূপে।



নুসরাত ইমরোজ তিশা

এবার ঈদে দর্শক যতটা না অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশার দেখা পাবেন, তার চেয়ে বেশি দেখবেন উপস্থাপক তিশাকে। একাধিক চ্যানেলে ধারাবাহিকভাবে প্রচার হবে তার উপস্থাপনার গেম শো 'দ্য বক্স'। শাহরিয়ার শাকিল পরিচালিত এই গেম শোর পাশাপাশি তিনি অভিনয় করেছেন 'অল অ্যাবাউট আস' নামের একটি নাটকে। এর বাইরে আরও বেশ কিছু আয়োজনে থাকছেন এই অভিনেত্রী।



তৌসিফ মাহবুব

গত ঈদে রেকর্ড সংখ্যক নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করে চমকে দিয়েছিলেন তৌসিফ মাহবুব। এই ঈদেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। লকডাউনের আগে ও পরে একনাগাড়ে কাজ করে গেছেন তিনি। সেসব কাজের বেশির ভাগই থাকছে এই ঈদের টিভি আয়োজনে। পাশাপাশি অনলাইনেও দেখা যাবে তার একাধিক নাটক ও টেলিছবি। সে তালিকায় আছে এফআর সোহেলের পরিচালিত নাটক 'প্রেম ফ্যাশন', জাকিউল ইসলাম রিপনের পরিচালিত 'মেজাজ খারাপ', মেহেদী হাসান হৃদয়ের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত 'লাফিং গ্যাস', মাহমুদুর রহমান হিমির রচনা ও পরিচালনার নাটক 'অন্য কিছুদিন পরের গল্প', মিফতা আনানের রচনায় ও পরিচালনার নাটক 'ঢাকাইয়া ওয়েডিং', জাহিদ প্রীতমের পরিচালনায় নাটক 'ভয় করো না' ইত্যাদি। সব মিলিয়ে তৌসিফ এই ঈদের থাকছেন সংখ্যাগরিষ্ঠ নাট্যাভিনেতার দলে।



তাহসান খান

কয়েক বছর ধরে গানের চেয়ে অভিনয়েই বেশি মনোযোগী তাহসান। এবারের ঈদে প্রায় হাফ ডজন নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। সব নাটকই ভালো মানের বলে মনে করছেন তাহসান। ঈদে তার উল্লেখযোগ্য কাজের তালিকায় আছে সাগর জাহানের পরিচালনায় 'কম খরচে ভালোবাসা', ভিকি জাহেদ পরিচালিত 'প্রিয় আদনান' ও মাবরুর রশিদ বান্নাহর পরিচালিত নাটক 'মায়ের ডাক'।



জাকিয়া বারী মম

ওয়েব সিরিজের ব্যস্ততার মাঝেও ঈদের বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম। তিনি অনেকেদিন ধরে গল্প, চরিত্র বাছাই করে কাজ করছেন, যার বেশির ভাগই দর্শক প্রশংসা পেয়েছে। এই ঈদে নির্মাতা ইমরাউল রাফাতের 'তুলা মিন মকর', মাবরুর রশিদ বান্নাহর 'মায়ের ডাক' ও সুমন আনোয়ারের 'ভেলকি' নাটকে তাকে দেখা যাবে ভিন্নরূপে।



তানজিন তিশা

প্রতি ঈদের মতো এবারও ছোটপর্দায় ব্যতিক্রমী গল্পে দেখা যাবে মডেল অভিনেত্রী তানজিন তিশাকে। যদিও এবার ঈদের তার কাজের সংখ্যা কিছুটা কম, তারপরও প্রতিটি কাজেই ভিন্নতা আছে বলে দাবি এই অভিনেত্রী ও তার নাটক-টেলিছবির নির্মাতাদের। এই ঈদে তানজিন তিশার উল্লেখযোগ্য কাজের মধ্যে রয়েছে- ইমরাউল রাফাতের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত নাটক 'পাপ্পু ওয়েড পিংকি', মুহম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত 'আমি কি তোমারই' মিজানুর রহামান আরিয়ানের 'হ্যালো শুনছেন' ও জাকারিয়া সৌখিনের পরিচালনায় নির্মিত 'এক মুঠো প্রেম'। এর পাশাপাশি 'আঁচড়' ও 'সাহসিকা' নামের দুটি টেলিছবিতে দেখা যাবে তাকে। তানজিন তিশার কথায়- নতুন গল্প ও চরিত্রের জন্যই এবার আগের চেয়ে অনেক বেছে কাজ করেছেন তিনি।



অপূর্ব

এখন প্রতিটি উৎসবে সর্বাধিক নাটকের শিল্পীর তালিকায় শীর্ষে থাকেন অপূর্ব। এই ঈদে তার ব্যতিক্রম হবে না বলেই অনেকের ধারণা। কারণ এরই মধ্যে রেকর্ড সংখ্যক নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। নির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ানের নাটক 'শুভ+নীলা', 'যদি কোনো দিন', রুবেল হাসানের 'সামবাদিক', টেলিছবি 'মি. এন্ড মিসেস চাপাবাজ আনলিমিটেড', 'আগডুম বাগডুম', নাটক 'তেজপাতা', সঞ্জয় সমাদ্দারের 'শোকসভা', মাহমুদুর রহমান হিমির '২১ বছর পরে', শিহাব শাহীনের 'রুনু ভাই', সোহেল আরমানের 'না হবে না কিছুতেই', বি ইউ শুভর 'প্রেমে পড়ে প্রেমিক', ইমরাউল রাফাতের 'ডাকাতের বংশ'সহ আরও বেশ কিছু নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। যেগুলো টিভি চ্যানেলের পাশাপাশি অনলাইনে দেখা যাবে। কাজের সংখ্যা বেশি হলেও প্রতিটি নাটক, টেলিছবিতে ভিন্নতা আছে বলে জানিয়েছেন অপূর্ব।



তাসনিয়া ফারিণ

সম্প্রতিক সময়ে যে ক'জন অভিনেত্রী দর্শকের মনোযোগ কেড়েছেন তাসনিয়া ফারিণ তাদের অন্যতম। গত ঈদের মতো এবারও বেশ কিছু নাটক ও টেলিছবিতে দেখা যাবে তাকে। সে তালিকায় আছে, নির্মাতা এসআর মজুমদারের 'মন দরিয়া', এফআর সোহেলের 'প্রেম ফ্যাশন', প্রবীর রায়ের 'বাবা তোমাকে ভালোবাসি', সঞ্জয় সমাদ্দারের 'শোকসভা', মাহমুদুর রহমান হিমির পরিচালনায় নাটক '২১ বছর পরে', 'ওভার এক্সপেক্টেশন', কাজল আরেফিন অমির 'আপন', ইমরাউল রাফাতের 'ডাকতের বংশ'সহ আরও বেশ কিছু একক নাটক ও টেলিছবি।

মন্তব্য করুন