অসিদের সফর বাতিল ভুল সিদ্ধান্ত

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৭      

স্পোর্টস ডেস্ক

ক্রিকেটার ও ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যকার দ্বন্দ্বে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অস্ট্রেলিয়া 'এ' দলের ক্রিকেটাররা। বেতন কাঠামো নিয়ে সৃষ্ট দু'পক্ষের এই দ্বন্দ্ব সহসা নিরসনের কোনো ইঙ্গিতও নেই। কারণ নিজেদের অবস্থান থেকে একচুলও সরতে চাইছে না কেউই। এ রকম অচলাবস্থা আরও কিছুদিন চললে আগামীতে সূচিতে থাকা অস্ট্রেলিয়ার অন্য সিরিজগুলোও হুমকির মুখে পড়বে। খেলোয়াড়দের সংগঠন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (এসিএ) পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল করে 'এ' দলের খেলোয়াড়রা বৃহত্তর স্বার্থে ব্যক্তিগত চাওয়াকে বলি দিয়েছেন। তবে সাবেক অস্ট্রেলিয়ান কোচ জন বুকাননের মতে, দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে সরে দাঁড়ানোটা খেলোয়াড়দের একটা ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। অস্ট্রেলিয়ার স্বর্ণালি সময়ের এই কোচের দাবি, দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করলে ক্রিকেটাররা নৈতিকভাবে আরও শক্ত অবস্থানে থাকতে পারতেন। অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যম ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়াকে গতকাল বুকানন বলেন, 'আমি জানি, কেন খেলোয়াড়রা দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অনেকগুলো কারণেই এটা আমার কাছে একটা ভুল সিদ্ধান্ত। এর মধ্যে একটা কারণ হলো, এ দলের ক্রিকেটাররা নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর একটা সুযোগ হারিয়েছে।'
তিনি আরও বলেন, 'এই সফরটা খেলোয়াড় ও এসিএর সামনে নৈতিকভাবে উন্নত থাকার একটা সুযোগ হিসেবে এসেছিল। খেলোয়াড়রা সফরে গেলে একটা ব্যাপার স্পষ্ট হতো যে, সবাই দিনশেষে খেলাটার স্বার্থই দেখছে।'
ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) ও এসিএর মধ্যকার দ্বন্দ্বটা নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে তিনি বেশ অসন্তুষ্ট জানিয়ে তিনি বলেন, 'আমার মনে হয়, দুইপক্ষের মধ্যেই সহিষ্ণুতার ঘাটতি রয়েছে। একই সঙ্গে আমার মনে হয়, পর্দার আড়ালে হয়তো সমাধানের একটা প্রচেষ্টা চলছে। আর সে প্রচেষ্টাই দু'পক্ষকে আলোচনার টেবিলে নিয়ে আসবে বলে আমার বিশ্বাস।' দেশের হয়ে খেলার সুযোগ কখনও হাতছাড়া করা উচিত নয় মনে করিয়ে দিয়ে বুকানন বলেন, 'দেশকে যে কোনো পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করতে পারাটা অনেক সম্মানের একটা ব্যাপার। আর দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগকে কখনও হালকাভাবে নেওয়া উচিত নয়।'