এক টেস্ট বহিষ্কৃত রাবাদা

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৭      

স্পোর্টস ডেস্ক

কাগিসো রাবাদার ভাগ্যটাকে কি খারাপ বলা যায়? কোনো ব্যাটসম্যানকে আউট করার পর সেই ব্যাটসম্যানকে দুয়েকটা কথা শুনিয়ে দেওয়া বোলারদের বেশ নিয়মিত একটা চর্চা। বলাই বাহুল্য, সেই কথাগুলোর বেশিরভাগই ছাপার অযোগ্য। চলমান লর্ডস টেস্টে বোলারদের সেই নিয়মিত চর্চারই পুনরাবৃত্তি করেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার রাবাদা, আর এর জেরেই এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন তিনি। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ১৪ জুলাই থেকে ট্রেন্টব্রিজে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে পারবেন না ২২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। লর্ডসে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকসকে আউট করার পর স্টোকসের উদ্দেশে দুটি শব্দ উচ্চারণ করেছিলেন রাবাদা। 'আপত্তিকর' সেই দুটি শব্দ ধরা পড়ে স্টাম্প মাইকে।
ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো রাবাদার এই আচরণ ভালোভাবে নেননি। আইসিসির আচরণবিধি লঙ্ঘন করার শাস্তিস্বরূপ এই পেসারের নামের পাশে যোগ হয় একটি ডিমেরিট পয়েন্ট, সঙ্গে ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানাও ধার্য করা হয়। এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে কেপ টাউনে অনুষ্ঠিত এক ওয়ানডে ম্যাচে শ্রীলংকার নিরোশান ডিকওয়েলার সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিলেন রাবাদা। আইসিসির নিয়মানুযায়ী, নামের পাশে চারটি ডিমেরিট পয়েন্ট থাকলে এক ম্যাচের জন্য নিষেধাজ্ঞা পাবেন ক্রিকেটাররা। রাবাদা অবশ্য ম্যাচ রেফারির কাছে নিজের দোষ স্বীকার করেছেন, মেনে নিয়েছেন শাস্তিও। এ কারণে আনুষ্ঠানিক কোনো শুনানির দরকার হয়নি। রাবাদার এই নিষেধাজ্ঞা দক্ষিণ আফ্রিকা দলের জন্য বেশ বড় একটা ধাক্কাই বটে। এমনিতেই এই সিরিজে প্রোটিয়ারা এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ডেল স্টেইনের মতো ক্রিকেটারকে পাচ্ছে না। নবাগত সন্তান ও স্ত্রীর প্রসব-পরবর্তী জটিলতার কারণে নিয়মিত টেস্ট অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসও খেলছেন না লর্ডস টেস্টে। রাবাদা নিষিদ্ধ হওয়ায় তাই ট্রেন্টব্রিজ টেস্টের সেরা একাদশ সাজাতে খানিকটা বিপাকেই পড়বে প্রোটিয়া টিম ম্যানেজমেন্ট। রাবাদার এই নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাবেক ক্রিকেটাররা মিশ্র মতামত দিয়েছেন। সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক মাইকেল ভন নিজের টুইটারে লিখেছেন, 'দুয়েকটা শব্দ উচ্চারণের জন্য রাবাদাকে এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলো। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার ধীরগতির ওভার-রেটের ব্যাপারে কী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে?' অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার টম মুডি মনে করছেন, রাবাদার এই নিষেধাজ্ঞার ফলে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের যে অবস্থা দাঁড়াবে, তাতে ট্রেন্টব্রিজ টেস্ট খুব একটা দর্শক টানতে পারবে না। টুইটারে মুডি লেখেন, 'সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি হবে টাকা খরচ করে খেলা দেখতে যাওয়া দর্শকদের।' বর্ষীয়ান ইংলিশ ক্রিকেটার ডেভিড লয়েড অবশ্য এই শাস্তিটাকে রাবাদার জন্য ইতিবাচকই মনে করছেন।