বিপিএল বনাম ওয়ার্ল্ড লীগ

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শঙ্কাটা আগেই ছিল, এ বছরের নভেম্বরে বিশ্ব ক্রিকেট ক্যালেন্ডারে বিপিএলই ছিল আকর্ষণীয় টুর্নামেন্ট। কিন্তু সেখানে এবার ভাগ বসাতে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকায় নতুন চালু করা ফ্র্যাঞ্চাইটি টি২০ টুর্নামেন্ট 'ওয়ার্ল্ড লীগ'। ২ নভেম্বর শুরু হচ্ছে বিপিএল, আর তার দু'দিন পর থেকেই ওয়ার্ল্ড লীগ। একই সময়ে দুটি লীগ মাঠে গড়ানোয় বিদেশি তারকা ক্রিকেটাররাও সুযোগ বুঝে তাদের দাম হাঁকিয়েছেন। দু'মাস আগে থেকেই বিদেশি তারকা ক্রিকেটারদের এজেন্টগুলো বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। একইভাবে ওয়ার্ল্ড লীগের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গেও যোগাযোগ রক্ষা করেছিল তারা। আর তাই গতকাল ওয়ার্ল্ড লীগ থেকে বিদেশি তারকাদের যে ড্রাফট লিস্ট প্রকাশ করা হয়েছে সেখানে ৯০ জন বিদেশি ক্রিকেটারের নাম এসেছে। কাল জোহানেসবার্গের নিলামে এই ক্রিকেটারদের নাম উঠবে। এই নিলামে যারা খেলার সুযোগ পাবেন তারা হয়তো বিপিএলের ড্রাফটে নিজেদের নাম রাখবেন না। বিপিএলের ড্রাফট অনুষ্ঠান হওয়ার কথা রয়েছে ১৬ সেপ্টেম্বর। অর্থাৎ ওয়ার্ল্ড লীগে সুযোগ না পাওয়া বিদেশি ক্রিকেটারদেরই শেষ পর্যন্ত দেখা যাবে বিপিএলে।
ওয়ার্ল্ড লীগের আয়োজকরা এদিন আট বিদেশি তারকা ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করেছে, যারা কি-না মার্কি ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ার্ল্ড লীগের পুরোটা সময় খেলবেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন ডোয়াইন ব্রাভো, ক্রিস গেইল, লাসিথ মালিঙ্গা, ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, ইয়ান মরগান, কেভিন পিটারসেন, কিয়েরন পোলার্ড আর জেসন রয়। তাদের মধ্যে গেইলের সঙ্গে বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি রংপুর রাইডার্সেরও যোগাযোগ হয়েছে। গেইল জানিয়েছেন, ওয়াল্ড লীগে তার দল যদি দ্বিতীয় রাউন্ডে না খেলতে পারে তবেই তিনি বিপিএলে আসবেন। তার মতো ডোয়াইন ব্রাভোও একই শর্ত দিয়েছেন। ওয়ার্ল্ড লীগের ড্রাফটে পাকিস্তান থেকে সর্বাধিক ২৩ ক্রিকেটারের নাম আছে। যাদের মধ্যে শহীদ আফ্রিদি, ফখর জামান, সোহেল তানভীর এরই মধ্যে বিপিএলের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে চুক্তিও করেছেন। তাই প্রশ্ন উঠেছে, তারা যদি ওয়ার্ল্ড লীগের ড্রাফট থেকে সেখানকার কোনো দলে সুযোগ পান তাহলে বিপিএলে আসবেন তো? আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে শুরু হতে যাওয়া ওয়ার্ল্ড লীগের একাদশে পাঁচজন করে বিদেশি ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পাবেন। দক্ষিণ আফ্রিকার এই ঘরোয়া লীগের ড্রাফটে ৯০ বিদেশি ক্রিকেটারকে নিয়ে যে ড্রাফট তালিকা করা হয়েছে সেখানে স্বাভাবিক কারণেই নেই কোনো বাংলাদেশি। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড থেকে মাত্র তিনজন করে এই লীগ খেলার আগ্রহ দেখিয়েছেন। ইংল্যান্ড থেকে ১৫ জন, শ্রীলংকা থেকে ১১ জন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে ১২ জন, জিম্বাবুয়ে থেকে চারজন আর আফগানিস্তান থেকে একজন রয়েছেন।
কাল এই ড্রাফট অনুষ্ঠানের পরই পরিষ্কার হয়ে যাবে, বিপিএলের ড্রাফটে থাকছেন কোন কোন বিদোশ ক্রিকেটার।