স্মিথদের অন্যরকম একদিন

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৮ আগস্ট ঢাকায় পা রাখার পর থেকে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। বাংলাদেশের কন্ডিশন ও উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে প্রতিদিনই তারা মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম সংলগ্ন একাডেমি মাঠে ঘাম ঝরাচ্ছে। তবে গতকাল ছিল তাদের ছুটি। আর ছুটির দিনটিতে একটু অন্যরকমভাবে কাটিয়েছেন স্মিথ-খাজারা। রাজধানীর মহাখালীতে বেসরকারি সংস্থা অক্সফামের কেন্দ্রীয় কার্যালয় পরিদর্শনে গিয়েছিলেন তারা। অস্ট্রেলিয়ান সরকারের আর্থিক সহায়তায় পরিচালিত অক্সফাম বস্তিবাসীর জন্য বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশন নিয়ে কাজ করে। এ ছাড়া বন্যাদুর্গত মানুষের জন্য ত্রাণ সহায়তাও দিচ্ছে তারা। এ ছাড়া বিভিন্ন দেশে ঝুঁকিপূর্ণ শ্রমে নিয়োজিত শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায়ও কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।
মহাখালীতে অক্সফাম কার্যালয় পরিদর্শনে গিয়ে ছয় অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার। অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের সঙ্গে ছিলেন উসমান খাজা, জস হ্যাজেলউড, হিলটন কার্টরাইট, জ্যাকসন বার্ড ও মিচেল সোয়েপসন। সেখানে তারা ঢাকার বিভিন্ন বস্তিতে বসবাসকারী সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সঙ্গে সময় কাটান। তাদের জীবনসংগ্রামের কাহিনী শোনেন। সময়টিকে ধরে রাখতে সেলফি তুলতেও ভোলেননি তারা।
ক'দিন আগেই অসি কোচ ড্যারেন লেম্যান বাংলাদেশের বন্যার্তদের সমব্যথী হয়েছিলেন। গতকাল অক্সফাম কার্যালয়েও বন্যার্তদের জন্য সহানুভূতি শোনা গেল অসি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান উসমান খাজার কণ্ঠে, 'আমাদের দেশের পত্রিকায় এ খবর (বন্যা) হয়তো তেমনভাবে আসে না। কিন্তু এখানে মানুষ বন্যায় ভীষণ কষ্ট পাচ্ছে। আমরা এখানে এসেছি সপ্তাহ খানেকের মতো হয়েছে। এর মধ্যেই আমরা টের পেয়েছি বৃষ্টির কি দাপট!' অক্সফামে তারা বেশ কয়েকজন নারীর জীবন সংগ্রামের গল্প শোনেন। জোরপূর্বক বিবাহ, শারীরিক নির্যাতন ও কঠিন কর্মপরিবেশের মধ্য থেকে বেরিয়ে এসে এসব নারী এখন অক্সফামের সাহায্য ও প্রশিক্ষণে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন। এসব সংগ্রামের গল্প শুনে ভীষণ অনুপ্রাণিত উসমান খাজা, 'একটি মেয়ে তার বেড়ে ওঠার গল্প শোনাচ্ছিল। সে জীবনে যে কতটা কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে, তা তার মুখ থেকে না শুনলে বোঝা যাবে না। কিন্তু সে লড়াই থামায়নি। মজার ব্যাপার হলো, এত লড়াই-সংগ্রামের মধ্যেও তারা ক্রিকেটের খবর রাখে।'