ভারত মাতাচ্ছেন সাবিনা

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

তামিলনাড়ূর সেথু এফসি গত ডিসেম্বরে ইন্ডিয়ানস উইমেন্স লীগের বাছাইপর্বে হেরে গিয়েছিল ইন্দিরা গান্ধী একাডেমির (পন্ডিচেরি) কাছে। গতকাল বাংলাদেশের সাবিনা খাতুনের নৈপুণ্যে সেই দলটিকে ৩-১-এ হারিয়েছে সেথু। ইন্ডিয়ান উইমেন্স লীগে এটি সেথু এফসির চতুর্থ জয়। আর টুর্নামেন্টে সাবিনার গোলসংখ্যা এখন ছয়টি।

সেথু-একাডেমি ম্যাচটি মাঠে গড়ায় গতকাল মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ে। জওহরলাল নেহেরু স্টেডিয়ামে ম্যাচের ২৭তম মিনিটে সেথুকে এগিয়ে দেন অধিনায়ক ইন্দুমতি। এর আট মিনিট পরই ইন্দিরা গান্ধীকে সমতায় ফেরান প্রদিপা। প্রথমার্ধ ও দ্বিতীয়ার্ধেরর অর্ধেক সময় পর্যন্ত ম্যাচ গড়াতে থাকে ১-১ সমতায়। ৭৬তম মিনিটে বিপরীত কোণ থেকে বাঁ পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন সাবিনা। বাংলাদেশ মহিলা দলের অধিনায়ক সেথুর জয় নিশ্চিত করেন এর সাত মিনিট পর। ইন্দুমতির কাছ থেকে পাওয়া বল ডি-বক্সের ভেতর থেকে বাঁকানো শটে জালে জড়ান তিনি। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে জোড়া গোল করলেন সাবিনা। গত বুধবার ইন্ডিয়া রাস সকার ক্লাবের বিপক্ষে সেথু এফসির ৩-২ ব্যবধানের জয়েও জোড়া গোল ছিল তার। অন্য দুটি গোলের একটি করেন গোকুলাম কেরালার বিপক্ষে, অন্যটি রাইজিং স্টুডেন্টদের বিপক্ষে।

সাবিনার ধারাবাহিক নৈপুণ্যে পাঁচ ম্যাচের চারটিতে জিতে সেমিফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেছে সেথু এফসি। অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন আয়োজিত সাত দলের এই প্রতিযোগিতায় লীগ পর্বে সেথুর ম্যাচ বাকি একটি। ১২ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে অবস্থান করছে সেথু। দলের কোচ কল্পনা দাস মেয়েদের ধারাবাহিক নৈপুণ্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন, 'চারটি ম্যাচ জেতার অনুভূতিটাই অন্যরকম। আজ দারুণ অবদান রেখেছে ইন্দুমতি। আর সাবিনার ফিনিশিং ছিল অসাধারণ।' লীগ পর্বে সেথু এফসির শেষ ম্যাচ আগামীকাল রোববার, প্রতিপক্ষ ইম্পলের ক্লাব ইস্টার্ন স্পোর্টিং ইউনিয়ন।