ব্রাজিলের 'ডিএনএ' আক্রমণ

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

স্পোর্টস ডেস্ক

মেরিল্যান্ডসের ফেডেক্স ফিল্ডে হওয়া ম্যাচটি বিশেষভাবে স্মরণীয় থাকার কথা নেতোর। ২৮ বছর বয়সী এই গোলরক্ষক জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার ৮ বছর এবং ২৪ ম্যাচ পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন। দীর্ঘ অপেক্ষার অভিষেকের ম্যাচটিতে কোনো গোল হজম করেননি তিনি। তবে ফিফা র‌্যাংকিংয়ের ৭২ নম্বর দল এল সালভাদরের কাছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের গোল হজমের সম্ভাবনা তেমন ছিলও না। সম্ভাবনা যেটি ছিল, সেটি শতভাগ পূরণ করে পাঁচ গোল দিয়েছেন নেইমাররা। একটি করে গোল করেছেন নেইমার, ফিলিপে কুতিনহো ও মারকুইনহোস, আর জোড়া গোল করেছেন প্রথম একাদশে প্রথমবার সুযোগ পাওয়া রিচার্লিসন। ম্যাচ শেষে ব্রাজিল কোচ তিতে বললেন, আক্রমণাত্মক ফুটবল তার দলের ডিএনএতেই আছে।

সালভাদরের ৩৭ শতাংশের বিপরীতে ৬৩ শতাংশ বলে দখল, গোলমুখে শূন্য শটের বিপরীতে ১৩ শট- বেশ আধিপত্য দেখিয়েই খেলেছে ব্রাজিল। পাওয়া সুযোগ কাজে লাগাতে পারার দক্ষতা নিয়ে তিতে বলেন, 'আক্রমণাত্মক মানসিকতা এই দলটির ডিএনএতেই আছে। প্রতিপক্ষকে চাপে রাখা, ধারাবাহিকভাবে চাপ দিয়ে যাওয়া- এসবই এ দলের ধারা। এ ম্যাচে যা দারুণভাবে বাস্তবায়িত হয়েছে।' যুক্তরাষ্ট্র সফরে চার দিন আগে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল। সে ম্যাচে নেইমাররা জিতেছিলেন ২-০তে। এবার ব্যবধান আরও বাড়ায় খুশি ব্রাজিল কোচ, 'প্রতিপক্ষ যেই হোক, আমাদের মূল ভাবনা একই থাকে। আমরা এভাবেই খেলতে চাই। সারাক্ষণ বল দখলে রাখা, আক্রমণাত্মক থাকা, নড়াচড়ার মধ্যে থাকা- এসবই আমাদের বৈশিষ্ট্য।'