প্রতিদান দিতে চান সাব্বির

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নিখাদ ব্যাটিং পারফরম্যান্সের কারণে তার দলে ফেরার কথা নয়। দুই সপ্তাহ আগে তাকে যখন নিউজিল্যান্ড সফরের স্কোয়াডে ঢোকানো হয়, তখন বিপিএলে একটি ৮৫ ছাড়া আর কোনো চল্লিশ রানের ইনিংসও ছিল না। আবার যে কারণে তাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, সেটিও ততদিনে শেষ হয়নি। এক মাসের নিষেধাজ্ঞা কমিয়ে অনেকটা আচমকাই দলভুক্ত করা হয়েছিল তাকে। তাহলে সুযোগ পাওয়ার বড় দুটি শর্ত পূরণ না হলেও দলে কোন যুিক্ততে ফিরলেন সাব্বির রহমান?

গেল দুই সপ্তাহে এ প্রশ্নে প্রচুর আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে। সব একপাশে সরিয়ে রাখলে এক কথায় উত্তর দাঁড়ায়- 'আস্থায়, বিশ্বাসে'। সাব্বির পারেন, সাব্বির পারবেন- এই আস্থায় তার দলে ফেরা। গতকাল নিউজিল্যান্ড সফরে রওনা হওয়ার আগে সাব্বির প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেলেন আস্থার প্রতিদানের। বললেন, 'প্রতিদান দেওয়ার চেষ্টা থাকবে। দেখা যাক, কী হয়। এর আগে দু'বার গিয়েছি নিউজিল্যান্ডে। অভিজ্ঞতা আছে। কন্ডিশন কেমন ধারণা আছে। আশা করি দ্রুত মানিয়ে নিতে পারব, ভালো খেলার চেষ্টা করব।' দর্শক পেটানো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হুমকি প্রদানসহ মাঠের বাইরের বেশ কিছু শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনায় গত সেপ্টেম্বরে তাকে ছয় মাসের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করে বিসিবি। নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ফেব্রুয়ারিতে। কিন্তু অস্বচ্ছ এক প্রক্রিয়ায় তাকে দলে ডাকা হয় জানুয়ারিতেই। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানিয়েছিলেন, অধিনায়ক মাশরাফির 'জোরালো দাবি'তে তাকে দলে ফেরানো হয়েছে। ডিসিপ্লিনারি কমিটিই তার সাজার মেয়াদ কমিয়েছে। তবে ডিসিপ্লিনারি কমিটির প্রধান শেখ সোহেল বলেন, নিষেধাজ্ঞা কমার কথা তিনি জানতেন না; হয়তো বোর্ডপ্রধান কমিয়েছেন। কিন্তু বিসিবিপ্রধান নাজমুল হাসান পাপন মন্তব্য করেন, স্কোয়াডে স্বাক্ষর করার আগে তিনিও সাব্বিরের কথা জানতেন না; তাকে বলা হয়েছিল নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ। একের পর এক দায়িত্বশীলদের দায় এড়ানো মন্তব্যের সূত্র ধরে গত দুই সপ্তাহ ধরে তুমুল আলোচনায় সাব্বির। এমন অবস্থায় দলে ফিরে সাব্বিরকে এখন জবাব দেওয়ার তাড়না অনুভব করছেন না? 'জবাব দেওয়া বড় বিষয় নয়। আমি ভালো খেলার চেষ্টা করব। আর ওইসব নিয়ে এখন চিন্তাও করছি না। পাস্ট ইজ পাস্ট। ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করছি। এটা আমার জন্য অনেক বড় সুযোগ। হতে পারে আমার সেকেন্ড চান্স। চেষ্টা করব, আগের সাব্বির রূপে ফিরে আসতে।'