জয়রথে আবাহনী

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নীলফামারীতে বসুন্ধরা কিংসের কাছে হারের পর অপ্রতিরোধ্য ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। প্রিমিয়ার লীগে টানা তিন জয় পেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গতকাল টিম বিজেএমসিকে ০-১ গোলে হারিয়েছে আকাশি-নীল জার্সিধারীরা। দিনের আরেক ম্যাচে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব ২-০ গোলে হারিয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে। টানা তিন জয়ের পর চতুর্থ ম্যাচে এসে হারল এ কে এম মারুফুল হকের দল। পাঁচ ম্যাচে চার জয় পাওয়া আবাহনী ১২ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত টেবিলের শীর্ষে আছে। দুইয়ে থাকা বসুন্ধরা কিংসের পয়েন্ট ৯। যদিও তারা দুই ম্যাচ কম খেলেছে।

ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণে দাপট দেখায় আবাহনী। কিন্তু বিজেএমসির রক্ষণ দেয়াল কোনোমতেই ভাঙতে পারছিল না তারা। ম্যাচের ১০ মিনিটে ওয়ালী ফয়সালের কর্নার বিজেএমসির ডিফেন্ডার জহিরুল আলম হেডে বিপদমুক্ত করতে গেলে বল জালের দিকে যাচ্ছিল। বিজেএমসির ভাগ্য ভালো, বলটা পোস্টে লেগে ফিরে আসে। একটু পর ওয়ালীর কর্নার বাঁক খেয়ে জালে ঢোকার আগে ফিস্ট করে ফেরান সোহাগ হোসেইন। ম্যাচের ২৬ মিনিটে এগিয়ে যায় আবাহনী। মাঝমাঠের একটু ওপর থেকে ওয়ালীর ফ্রিকিকে অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে তপু বর্মণের হেড চলে যায় জালে।

বিরতির পর গোলের কয়েকটি ভালো সুযোগ সৃষ্টি করে বিজেএমসি। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে আবদুল্লাহ আল মামুনের কর্নারে ক্যামেরুনের ডিফেন্ডার বেবেকের হেড অল্পের জন্য ক্রসবারের ওপর দিয়ে গোলে হতাশা নেমে আসে বিজেএমসি শিবিরে। চার মিনিট পর রুবেলের আড়াআড়ি ক্রসে বল পান নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবা। কিন্তু গোলমুখ থেকে হেড নিতে তিনি ব্যর্থ হলে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ৭৪ মিনিটে আবাহনীর ত্রাতা তপু। শরিফুল ইসলামের দুর্বল শট গোলরক্ষক শহীদুলের পায়ে লেগে জালের দিকে ছুটছিল, গোললাইনের একটু ওপর দিয়ে ফেরান আবাহনীর জয়ের নায়ক তপু।

প্রিমিয়ার লীগে এবার প্রথম ঢাকায় খেলতে আসা আরামবাগকে হারানোর নায়ক শেখ জামালের সলোমন কিং ক্যানফর্ম। ৬২ মিনিটে স্পট কিকে নিজে গোল করার পাঁচ মিনিট পর এমানুয়েলকে দিয়ে দ্বিতীয় গোল

করান তিনি।