মুমিনুলদের জন্য কিউই কোচ

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

গেলবার নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে মুমিনুলদের সঙ্গে নিয়েই ঘুরেছিলেন কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ওয়ানডে দলের প্রস্তুতি শেষ হলে টেস্ট স্কোয়াডে থাকা মুমিনুল-শুভাশিসদের জন্য আলাদা কিছুক্ষণের সেশন থাকত সেই সফরে। টেস্ট স্কোয়াডে থাকা সদস্যদের সেই সেশনে মূল দায়িত্বে ছিলেন বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। তবে ওয়ানডে দলের মধ্যে থেকে সেভাবে অনুশীলনে লাল বলের খেলোয়াড়রা আলাদা সুবিধা পেতেন না। বরং ম্যাচের দিন হোটেল রুমে বসেই সময় কাটাতে হতো মুমিনুলদের। দু'বছর আগের সেই অভিজ্ঞতা থেকেই এবার সাকিবের পরামর্শে টেস্ট স্কোয়াডে থাকা ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে আলাদা ক্যাম্প করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। কোচ স্টিভ রোডস নন, মুমিনুল-তাইজুলদের জন্য ওই ক্যাম্পে কোচের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় কোচ রেইস মরগ্যানকে। লেভেল থ্রি করা ওই কোচের 'আরএম ক্রিকেট' নামের একটি একাডেমি রয়েছে। ক্রাইস্টচার্চে সেই একাডেমিতেই ওয়ানডে সিরিজের সময় অনুশীলন করবেন মুমিনুল, তাইজুল, সাদমান, এবাদত, আবু জায়েদ আর খালেদ আহমেদ। 'কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই টেস্ট স্কোয়াডের খেলোয়াড়দের একটু আগে পাঠানো হবে নিউজিল্যান্ডে। যাতে করে সেখানে তাদের অনুশীলনের ঘাটতি না থাকে। আমাদের প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের পরামর্শেই তাই স্বল্প মেয়াদে নিউজিল্যান্ড সফরে সেখানকার একজন কোচ রেইস মরগ্যানকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ওয়ানডে চলার সময় আমাদের ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে তিনি কাজ করবেন।' বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান আকরাম খান জানান, ওয়ানডে ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য আজ মুমিনুল, শফিউল ও মিথুন সেখানে চলে যাবেন। টেস্ট স্কোয়াডের বাকি চারজন পৌঁছাবেন ১৫ ফেব্রুয়ারি। এরপর ১৬ থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মুমিনুলদের নিয়ে কাজ করবেন মরগ্যান।

এবারের নিউজিল্যান্ড সফর শুরু হচ্ছে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে। ১৩ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি নেপিয়ার, ক্রাইস্ট চার্চ ও ডুনেডিনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে খেলবেন মাশরাফিরা। এরপর ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে হ্যামিলটনে শুরু হবে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। অনেক দিন পর তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে নামছে টাইগাররা। তাই এবারের সফরে টেস্ট স্কোয়াডে বেশকিছু পেসার রাখা হয়েছে। আকরাম খান মনে করছেন, দু'বছর আগের সেই সিরিজের চেয়ে এবার বাংলাদেশ আরও ভালো করবে। ওয়ানডে সিরিজের সময় কোচিং স্টাফদের সবাই মাশরাফিদের নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন। সেই কারণেই স্টিভ রোডস নিউজিল্যান্ডের ওই কোচের নাম সুপারিশ করেছেন মুমিনুলদের ওই সময়ের জন্য দেখভাল করার জন্য। মাত্র তিনটি প্রথম শ্রেণি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা থাকলেও রেইস মরগ্যানের কোচিং এবং ক্রিকেট স্ট্যাটিসটিক্স নিয়ে কাজ করার বহু অভিজ্ঞতা আছে। মূলত সে কারণেই তাকে স্বল্প মেয়াদের জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। হ্যামিলট ছাড়াও বাংলাদেশ এই সফরে বাকি দুটি টেস্ট খেলবে ওয়েলিংটন এবং ক্রাইস্টচার্চে।