হিসাবটা তোলা রইল

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

স্পোর্টস ডেস্ক

অনেকেই হয়তো জয়-পরাজয়ের একটা অঙ্ক কষে রেখেছিলেন। কিন্তু দিন শেষে সেই অঙ্কের সমাধান মিলল না! উত্তাপের এল ক্ল্যাসিকো যখন নিরুত্তাপ ড্রয়ে শেষ হয়, তখন অঙ্ক মেলানো একটু কঠিনই। কারণ, সব হিসাব যে ফিরতি লেগে হবে। ২৭ ফেব্রুয়ারি রিয়াল মাদ্রিদের ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে পাওয়া যাবে আসল সমাধান। যদিও এরই মধ্যে বুধবার ১-১ গোলে ড্র করে অ্যাওয়ে হিসাবে এগিয়ে গেল রিয়াল। তারপরও ছেড়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। লস ব্লাঙ্কোস কোচও তেমন আভাস দিয়ে রাখলেন, 'আসলে এটা বলা কঠিন। ফুটবলে অনেক কিছুই হতে পারে। এই ম্যাচে যেমন প্রথমার্ধে আমরা ভালো করেছি। ভিনিসিয়াস, বেনজেমা, ক্রুসরা পারফর্ম করেছে। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে বার্সা বলের দখল নিয়ে যায়। ম্যাচের অনেকটা নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে ছিল। সে ক্ষেত্রে আমি বলব, এখনও যেহেতু ম্যাচটা সমান সমান আছে, ফলে পরের ম্যাচে যে কোনো ফল আসতে পারে। দুই দলের সামর্থ্য আছে পরের রাউন্ডে যাওয়ার। তবে এ মুহূর্তে আমি কাউকে এগিয়ে রাখছি না।'

ন্যু ক্যাম্পে গত বুধবার লিওনেল মেসিকে ছাড়াই শুরুর একাদশ সাজায় বার্সা। তাতে মাঠের পারফর্মেও কেমন জানি একটা ছন্নছাড়া ভাব ফুটে ওঠে, বিশেষ করে প্রথমার্ধে। একের পর এক সুযোগ মিস, ভুল পাস আর বলের দখল হারানো। এসবের খেসারতও দিতে হয় দ্রুত। ম্যাচের ছয় মিনিটের মাথায় দারুণ পাল্টা আক্রমণে লিডের দেখা পায় রিয়াল। ভিনিসিয়াস জুনিয়রের ক্রস ধরে বার্সার গোলমুখে লুকাস ভাসকেজকে বল দেন করিম বেনজেমা। ভাসকেজও আলতো শটে ফাঁকি দেন আন্দ্রে টেন স্টেগানের চোখ। দ্বিতীয়ার্ধে যদিও মেসিকে নামায় বার্সা। তবে শেষ পর্যন্ত জয়ের দেখা পায়নি স্বাগতিকরা। তার আগে ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে ম্যালকমের নৈপুণ্যে সমতায় ফেরে বার্সা। এরপর ৬৩তম মিনিটে ফিলিপ কুতিনহোকে উঠিয়ে নামানো হয় মেসিকে। তাতে অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, প্রথমে কেন নামানো হয়নি আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে। বিষয়টি ম্যাচের পর খোলাসা করে বলেছেন বার্সা কোচ। চোট সারলেও পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে নিয়ে কোনো প্রকার ঝুঁকি নিতে চাননি আর্নেস্তো ভালভার্দে। যে কারণে ম্যাচের পুরো সময় তাকে খেলার সুযোগ দেওয়া হয়নি, 'লিও এখন ভালো আছে। আসলে মৌসুমে এ পর্যায়ে এসে আমরা তাকে নিয়ে কোনো প্রকার ঝুঁকি নিতে চাই না। আর শুরুতে সে নিজেও কিছুটা অস্বস্তির মধ্যে ছিল। আমি বলেছি, যখন শতভাগ ভালো মনে হয় তখন নামতে।'

ড্রয়ে বার্সা এক প্রকার খুশি, তবে রিয়াল বেজার। এমন হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। শুরুতে এগিয়ে যাওয়ার পর রক্ষণ সামলাতে ব্যর্থ হওয়া মোটেও স্বস্তিজনক নয়। রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোল করা ভাসকেজের কণ্ঠে তেমন ইঙ্গিত, 'এই ম্যাচে ড্র আসলে যথার্থ ফল হতে পারে না। আমরা তাদের চেয়ে ভালো ফুটবল খেলেছি। অনেক সুযোগ তৈরি করেছি। তবে পরের ম্যাচে ঘরের মাঠে ইতিবাচক কিছু করতে হবে। আশা করছি, কোপার ফাইনাল খেলবে রিয়াল।' মেসির অবর্তমানে বার্সার ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সার্জিও বুসকেটস। শুরুতে গোল খাওয়ার পর শোধ করতে পেরে উচ্ছ্বসিত তিনি, 'দুই দলই লড়াই করেছে। তাতে ড্র হওয়াটা মন্দ নয়।'