ন্যু ক্যাম্পে 'মেসি-নাইট'

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

স্পোর্টস ডেস্ক

চব্বিশ ঘণ্টা আগে ফুটবলবিশ্ব বুঁদ হয়ে ছিল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোয়। অ্যাথলেটিকোর বিপক্ষে করা রোনালদোর হ্যাটট্রিক পারফরম্যান্সটি কেমন লেগেছিল লিওনেল মেসির?

- ম্যাজিক্যাল। বার্সেলোনার সুপারস্টার যখন রোনালদোর হ্যাটট্রিককে 'ম্যাজিক্যাল' বলে অভিহিত করলেন, তার খানিক আগে লিঁওর বিপক্ষে জাদুকরী এক পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন তিনি নিজেও। গোল করেছেন দুটি, করিয়েছেন আরও দুটি। প্রথমটি পেনাল্টি স্পট থেকে, যেটি তার অতি মানবীয় ফুটবল নৈপুণ্যের ভিড়ে মানবিক দুর্বলতা বলে পরিগণিত। আর দ্বিতীয় গোলটি কিংবদন্তি পেলে বর্ণিত 'বাঁ পায়ের খেলোয়াড়' তকমার বিপরীতে- ডান পায়ে। যথাক্রমে ১৭ আর ৭৮ মিনিটে দেওয়া মেসির এ দুই গোলই বার্সাকে দেয় জয়ের ভিত্তি। ৮১ আর ৮৬ মিনিটে তার অ্যাসিস্টে জেরার্ড পিকে ও উসমান ডেম্বেলের আরও দুটি গোলে দাপুটে জয়ে আসে পূর্ণতা। পাশাপাশি ৩১ মিনিটের সময় ফিলিপে কুতিনহোর গোল মিলিয়ে কাতালান ক্লাবটির জয়ের ব্যবধান ৫-১। গত মাসে ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত প্রথম লেগ গোলশূন্য থাকায় দ্বিতীয় লেগের এ ব্যবধানটিই হয়ে উঠল শেষ ষোলোর ফল। যে ফলে ভর করে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের টানা ১২ আসরের শেষ আটে জায়গা করে নিল পাঁচবারের শিরোপাজয়ীরা।

ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনাকে দারুণ এই জয় এনে দেওয়া মেসিকে নিয়ে চলছে এখন স্তুতির ঢল। কোচ এর্নেস্তো ভালভার্দে তো সব সময়ই প্রিয় শিষ্যের খেলায় মুগ্ধ। পরাজিত দলের কোচ ব্রুনো জেনেসিও কী বলেছেন সেটাই বরং শোনা যাক- 'চ্যাম্পিয়ন্স লীগ যেমন চ্যাম্পিয়নদের, ঠিক তেমন মুডেই ছিল মেসি। সে এমনই প্রতিভাবান, যা অন্য কেউ না পারলেও তার পক্ষে সম্ভব।' মেসি নিজে অবশ্য নিজের দ্বিতীয় গোলের আগ পর্যন্ত কিছুটা চিন্তায় ছিলেন। প্রথমার্ধে তার এবং কুতিনহোর গোলে এগিয়ে থাকলেও ৫৮ মিনিটে তুজার্টের গোলে ব্যবধান কমিয়ে এনেছিল লিও। এ সময় খানিকটা ছন্দ হারিয়ে ফেলে বার্সার আক্রমণভাগও। তার পরও ৭৮ মিনিটের সময় আসে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলা মেসির গোলটি, 'সত্যি বলতে কী, ২-১ থাকার সময় আমরা কিছুটা পিছিয়ে পড়েছিলাম। ওরা তেমন কিছু করতে না পারলেও আমরাই নিজেদের খেলাটাকে জটিল করে ফেলছিলাম। সৌভাগ্যজনকভাবে তৃতীয় গোলটা পেয়ে যাই। টোকা দেওয়ার পর মনে হচ্ছিল বল বুঝি জালের ভেতরে যাবে না! তবে গেল এবং আমরাও স্বস্তি পেলাম।' শেষ আটের ড্রতে বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ হয়ে যেতে পারে জুভেন্তাস, অর্থাৎ মেসির প্রতিপক্ষ রোনালদো। আগের রাতে পর্তুগিজ তারকার হ্যাটট্রিক আর সম্ভাব্য আগামীর প্রতিপক্ষকে কীভাবে দেখছেন আর্জেন্টাই তারকা? 'ক্রিশ্চিয়ানো আর জুভেন্তাস যা করেছে তা এককথায় দারুণ। এটি ছিল ক্রিশ্চিয়ানোর জন্য ম্যাজিক্যাল নাইট।