যা বললেন সাকিব-মাশরাফি

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ঠিক এক মাস আগে, ১৬ ফেব্রুয়ারি ক্রাইস্টচার্চে ছিল বাংলাদেশ। ওই সময় ওয়ানডে সিরিজ খেলা দলের নেতৃত্বে ছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। পরে টেস্ট সিরিজের সময়ে দলে যোগ দেওয়ার কথা ছিল সাকিব আল হাসানের। তবে চোট সেরে না ওঠায় টেস্ট অধিনায়কের আর যাওয়া হয়নি। ওয়ানডে সিরিজ শেষে চলে এসেছিলেন মাশরাফিও। যে কারণ গতকাল ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ দল যখন সন্ত্রাসী হামলায় আক্রান্ত, তখন দুই নিয়মিত অধিনায়কই দলের বাইরে। তবে রিয়াদ-তামিম-মুশফিকদের সঙ্গে না থাকলেও তাদের জন্য সহমর্মিতা জানিয়েছেন সাকিব-মাশরাফি। মাশরাফি তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে লেখেন, 'হামলার ঘটনায় বাংলাদেশিসহ বহু মানুষের নিহত হওয়ার খবর পাচ্ছি। আমি এমন সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। ঘটনাটি শোনার পর থেকে আমাদের ক্রিকেটারদের নিয়ে খুবই দুশ্চিন্তায় ছিলাম। আল্লাহর অশেষ রহমতে আমাদের ক্রিকেটাররা বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রেহাই পেয়েছেন। তারা নিরাপদে আছেন।' সাকিব টুইটার ব্যবহার করে বলেন, 'ক্রাইস্টচার্চের সন্ত্রাসী হামলা নিয়ে আমার কিছু বলার নেই। শুধু এটাই বলতে পারি, মহান আল্লাহপাকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তিনি আজ আমার ভাই ও সতীর্থদের বাঁচিয়ে দিয়েছেন। আলহামদুলিল্লাহ।' এ ছাড়া নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক থেকে সাকিব লেখেন, 'যে কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডই দুঃখজনক। ব্যাপারটা আরও শোচনীয় হয় যখন সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালানো হয় কিছু নিষ্পাপ প্রার্থনারত মানুষের ওপর। দুর্ঘটনায় নিহত সকল বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি। কাপুরুষোচিত এই ঘটনায় স্বজন হারানো শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি

জানাচ্ছি সমবেদনা।'