বাতিল তৃতীয় টেস্ট

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর নৃশংস হামলার পর বাতিল করা হয়েছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার তৃতীয় ও শেষ টেস্ট। বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোর ৪টা থেকে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে শুরু হওয়ার কথা ছিল ম্যাচটি। হামলার পর গতকাল শুক্রবার দেশটির ক্রিকেট বোর্ড নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি) এক টুইটে ম্যাচ বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

হামলার পর এক টুইটে এনজেডসি জানায়, 'এনজেডসি ও বিসিবির যৌথ সিদ্ধান্তে হ্যাগলি ওভাল (ক্রাইস্টচার্চ) টেস্ট বাতিল করা হয়েছে। দুই দলের খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফ সবাই নিরাপদে আছে।' ক্রিকেট নিউজিল্যান্ডের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট টিভিএনজেডকে বলেন, 'দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডই একমত যে, বর্তমান পরিস্থিতি ক্রিকেট খেলার জন্য উপযোগী নয়। সত্যি বলতে, এটা অবিশ্বাস্য এক ব্যাপার। আমরা সবাই স্তম্ভিত। তাই দুই দেশের বোর্ডই টেস্ট বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।'

টেস্ট বাতিলের এই সিদ্ধান্তে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসি। এক বিবৃতিতে সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন বলেন, 'ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ হামলায় যেসব পরিবার ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে, তাদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড দলের সব খেলোয়াড়, দলের সব স্টাফ ও ম্যাচ অফিসিয়ালরা নিরাপদে আছেন। দুই দলের মধ্যকার শেষ টেস্ট ম্যাচটি বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে আইসিসির।'

শহরের ডিন্স এভিনিউর আল নূর মসজিদ এবং লিনউড এলাকার অন্য আরেকটি মসজিদে গতকাল জুমার নামাজের সময় চালানো এই হামলায় মারা গেছেন ৪৯ জন, যার মধ্যে তিন বাংলাদেশিও রয়েছেন। বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে কয়েকজনের আল নূর মসজিদেই জুমার নামাজ আদায় করার কথা ছিল। ক্রিকেটাররা সেখানে পৌঁছানোর কিছুক্ষণ আগেই হামলা শুরু হয়। মসজিদে ঢোকার আগে গোলাগুলির খবর জানতে পেরে তারা হ্যাগলি ওভালে ফিরে আসেন। সেখান থেকে এরপর তাদের ফেরত নেওয়া হয় টিম হোটেলে।