বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব

প্রত্যয়ী বাংলাদেশের সামনে লাওস

প্রকাশ: ১১ জুন ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ফুটবলে অস্তিত্বের লড়াই আজ। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রথম রাউন্ডের দ্বিতীয় লেগে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় লাওসের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে না হারলে উঠে যাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। আর দুই গোলের ব্যবধানে পরাজিত হলে ফুটবলে রচিত হবে আরেকটি কলঙ্ক অধ্যায়। কয়েক বছরের জন্য ফিফা ও এএফসির অন্তর্ভুক্ত কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবেন না জামাল ভূঁইয়ারা।

সামনে কী হবে, সেটা নিয়ে ভাবার সময় যে নেই। অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া বেশ আত্মবিশ্বাসী। কোচ জেমি ডেও প্রত্যয়ী। ৬ জুন লাওসের মাঠ থেকে ১-০ গোলের জয়ই পরের পর্বে খেলার রাস্তাটা সহজ করে দিয়েছে। এটা আবার শাপেবরও হতে পারে। যেমনটি হয়েছিল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। দুই ম্যাচ জিতেও সেমিফাইনালে যেতে পারেনি লাল-সবুজের দলটি। আজ লাওসের বিপক্ষে আত্মতুষ্টিতে না ভুগে শতভাগ মেলে ধরতে প্রস্তুত টিম বাংলাদেশ। গতকাল বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে কোচ জেমি বারবার বলেছেন, এখনও ৭০ শতাংশ কাজ বাকি। প্রথম লেগে লাওসের মাঠে প্রথমার্ধে খুঁজে পাওয়া যায়নি বাংলাদেশকে। দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়িয়ে রবিউলের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। এবারের লড়াইটা ঘরের মাঠে। পরিচিত কন্ডিশন ও স্বাগতিক দর্শকের সামনে খেলার সুবিধা পাবে বাংলাদেশ। কিন্তু এসব তো মাঠের বাইরে। খেলতে হবে সবুজ গালিচায়। এটা মনে করিয়ে দিলেন জেমি, 'আমরা জানি আগামীকাল (আজ) কঠিন একটা ম্যাচ হবে। প্রথম লেগের জয়টা অনেকটা ভাগ্যের জোরে পেয়েছি। কিন্তু এবার আমরা ভালো খেলেই জিততে চাই।'

গোল করার সঙ্গে নিজেদের গোলপোস্টও আগলে রাখতে হবে। পুরো ৯০ মিনিট ডিফেন্ডারদের চোখ-কান খোলা রাখতে হবে। লাওসকে সুযোগ দিলেই সর্বনাশ। সেট পিসে তারা বিপজ্জনক। বিশেষ করে তাদের অধিনায়ক সুক আপোনে। 'আমরা ম্যাচটা জিততে চাই। ম্যাচটা জিততে হলে অবশ্যই নিজেদের গোলপোস্ট অক্ষত রাখতে হবে। সে জন্য রক্ষণভাগ শক্তিশালী হতে হবে। আমাদের ডিফেন্ডাররা প্রস্তুত আছে'- আত্মবিশ্বাসের সুরে বলেছেন বাংলাদেশ কোচ।