'সেমিফাইনাল শুধুই একটি ম্যাচ'

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়া দল যখন ঘোষণা করা হলো তখন যে খেলোয়াড়টি নিজেকে সবচেয়ে অভাগা মনে করেছেন, তিনি পিটার হ্যান্ডসকম্ব। অসাধারণ ফর্মে থাকা সত্ত্বেও নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরত আসা স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে দলে জায়গা দিতে বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন বিসর্জন দিতে হয় তাকে। তবে শন মার্শ ইনজুরিতে পড়ায় অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই বিশ্বকাপ দলে ডাক পাওয়ার পর কি-না বলছেন, বাড়তি কোনো উত্তেজনা কাজ করছে না তার মধ্যে!

শুধু দলে ডাক পাওয়াই নয়, কালকের সেমিতে খেলার সম্ভাবনাও আছে হ্যান্ডসকম্বের। তার কাছে এটা স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতো বিষয় হলেও আর যে কোনো ম্যাচের মতোই এটাকে দেখতে চান তিনি, 'কথাটা একটু ক্লিশে শোনায়, তার পরও বলব এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। ছোটবেলায় বন্ধুদের সঙ্গে বিশ্বকাপের অনেক সেমিফাইনাল আর ফাইনাল খেলেছি। তাই বাস্তবে এ সুযোগ পাওয়াটা দারুণ। আসলে দল আপনার কাছে কী প্রত্যাশা করছে, সেটা জানাটা গুরুত্বপূর্ণ। গত কিছুদিনের ম্যাচগুলোতে যেভাবে খেলেছি, এ ম্যাচেও সেভাবেই খেলার চেষ্টা করব আমি।'

অস্ট্রেলিয়ায়ও অবশ্য সেটাই চাইবে। স্মিথ-ওয়ার্নারদের অনুপস্থিতিতে গত এক বছরে অস্ট্রেলিয়া দল ছিল নিজের ছায়া হয়ে। কিন্তু বিশ্বকাপের ঠিক আগে তাদের পুনর্জাগরণে অন্যতম ভূমিকা পালন করেন হ্যান্ডসকম্ব। এ সময় ১২ ম্যাচে ৪৭৯ রান করেছিলেন তিনি। ২-০-তে পিছিয়ে থেকেও ভারতের মাটিতে তাদের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জয়েও বড় অবদান ছিল তার। এরপর আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজেও ভালো করেন তিনি। তবে এর আগে দলে আসা-যাওয়ার মধ্যেই কাটাতে হয়েছে তাকে। হ্যান্ডসকম্ব জানাচ্ছেন, ক্যারিয়ারে ভালো করার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসটা তিনি পেয়েছিলেন ওই দুই সিরিজ থেকেই, 'ওই সিরিজ দুটিতে ভালো করার পরই আমি নিজের ওপর বিশ্বাসটা পেয়েছিলাম। এখন আমি আমার স্কিলের ওপর ভরসা করতে পারি, কারণ আমি জানি আমি আগেও রান করেছি।'