হ্যাটট্রিক দিয়েই ব্যালন ডি'অর উদযাপন

প্রকাশ: ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯      

স্পোর্টস ডেস্ক

হ্যাটট্রিক দিয়েই ব্যালন ডি'অর উদযাপন

মেসির ব্যালন ডি'অর উদযাপনে ছিল তিন ছেলে থিয়াগো, মাতেও এবং সিরো- টুইটার

এখনও রিয়াল মাদ্রিদের নামটা সবার ওপরে। স্প্যানিশ লিগে লস ব্লাঙ্কোসদের চেয়ে সবচেয়ে বেশি হ্যাটট্রিক হয়েছে। তার পরের নামটা বার্সেলোনার। তবে ক্লাবের হিসাব বাদ দিয়ে ব্যক্তিগত হ্যাটট্রিক লিস্টে তাকালে সবার ওপরের নামটা লিওনেল মেসির। এতদিন তার ওপরে ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। শনিবার রাতে ক্যাম্প ন্যুতে পুঁচকে মায়োর্কার জালে তিন-তিনবার বল পাঠিয়ে সিআর সেভেনকে টপকে যান ছয়বারের এই বর্ষসেরা ফুটবলার। এই মুহূর্তে লা লিগায় হ্যাটট্রিক কিং মেসিই।

এদিন নিজের রেকর্ড ষষ্ঠ ব্যালন ডি'অর নিয়ে ঘরের মাঠে পা রাখেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। সঙ্গে ছিল পুরো পরিবার। ঐতিহ্য অনুযায়ী ব্যালন ডি'অর বা ফিফা দ্য বেস্ট কিংবা উয়েফার কোনো পুরস্কার জিতলে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে উদযাপন করতে হয়। সে ক্ষেত্রে ওই পুরস্কার জেতার পরের ম্যাচেই বিজয়ীর জন্য মঞ্চ সাজায় কাতালান ক্লাবটি। শনিবার রাতেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। তিন ছেলে আর স্ত্রীকে নিয়ে আসেন ক্যাম্প ন্যুতে। রেফারির 'কিক অফ' বাঁশির আগে ব্যালন ডি'অর ট্রফিটা নিয়ে মাঠে ঢোকেন দুই ছেলে মাতেও আর থিয়াগো। সঙ্গে ছোট্ট ছেলেও। মেসি এগিয়ে যান তাদের দিকে। এরপর সোনালি বলটা হাতে নিয়ে গ্যালারিভরা দর্শকদের সামনে উঁচিয়ে ধরেন। চারদিক থেকে সবাই অভিবাদন দিয়ে মেসির নতুন প্রাপ্তিকে বরণ করে নেন।

মাঠের লড়াইয়ে মেসি ছিলেন উজ্জ্বল। যদিও শুরুটা করেন অ্যান্তোনি গ্রিজম্যান। ৭ মিনিটের মাথায় তার গোলে লিড নেয় বার্সা। এরপর বাকি চার গোলের একটি লুইস সুয়ারেজের আর তিনটি মেসির। ১৭তম মিনিটে স্বাগতিকদের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন নাম্বার টেন। ৪১তম মিনিটে আবারও মেসি। এবার নিজের জোড়া গোলের সঙ্গে দলের স্কোরও বাড়িয়ে নেন। ৪৩তম মিনিটে সবাইকে চমকে দিয়ে গোল উদযাপন করেন সুয়ারেজ। বিরতির পর ৮৩তম মিনিটে রেকর্ড হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি। মাঝে অবশ্য দুটি গোল শোধ করে মায়োর্কা। তাতে কাজের কাজ হয়নি। বলতে পারেন সান্ত্বনা মাত্র। এই জয়ে বার্সা তাদের শীর্ষস্থানেই রইল। ১৫ ম্যাচে অংশ নিয়ে বর্তমানে তাদের পয়েন্ট ৩৪। সমান ম্যাচ খেলা রিয়ালের পয়েন্টও ৩৪। তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে আছে জিনেদিন জিদানের ছাত্ররা।