যে কারণে বরখাস্ত ভালভার্দে

প্রকাশ: ১৫ জানুয়ারি ২০২০      

স্পোর্টস ডেস্ক

অবশেষে গুঞ্জনই সত্যি হলো। দলের বাজে পারফরম্যান্সের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে আর্নেস্তো ভালভার্দেকে। তবে তার জায়গায় বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাবটির কোচ হিসেবে যাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে, সে মানুষটি আলোচনাতেই ছিলেন না। ভালভার্দের উত্তরসূরি হিসেবে আলোচনায় ছিলেন দুই বার্সা গ্রেট জাভি হার্নান্দেজ ও রোনাল্ড কোয়েম্যান। কিন্তু দু'জনই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলে অনেকটা চমকের মতোই ৬১ বছর বয়সী কিকে সেতিয়েনকে নিয়োগ দেয় বার্সা বোর্ড। ক্লাবের ওয়েবসাইটে বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় এক বিবৃতিতে নতুন কোচ নিয়োগের ঘোষণা দেয় বার্সা। রিয়েল বেতিসের সাবেক এ কোচকে আড়াই বছরের জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

কিছুদিন ধরেই ভালভার্দের ছাঁটাইয়ের গুঞ্জন চলছিল। বার্সা বোর্ড তার ওপর অসন্তুষ্ট ছিল মূলত ইউরোপিয়ান মঞ্চে সাফল্য এনে দিতে না পারায়। ঘরোয়া ফুটবলে ভালোই করেছিলেন তিনি। ২০১৭ সালের মে মাসে লুইস এনরিকের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার পর বার্সাকে দুটি লা লিগা, একটি সুপার কোপা ও একটি কোপা দেল রে জিতিয়েছেন। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সাফল্য এনে দিতে না পারার খেসারত দিতে হয় তাকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গত দুটি আসরে নকআউট পর্বে প্রথম লেগে বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকার পরও দ্বিতীয় লেগে লজ্জার হারে ছিটকে যায় তারা। লিভারপুলের কাছে ৪-০ ও রোমার কাছে ৩-০ গোলের হার বার্সার ইতিহাসে ট্র্যাজেডি হিসেবে চিহ্নিত। চলতি মৌসুমেও বার্সার পারফরম্যান্স ভালো ছিল না। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকলেও এবার লা লিগায় তিন ম্যাচ হেরেছে বার্সা। আর লিগে সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচে তিনটি ড্র। তার পরও এ মৌসুম পর্যন্ত তার টিকে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা দেখেছিলেন অনেকেই। কারণ গত সতেরো বছর মৌসুমের মাঝপথে কোচ বদল করেনি বার্সা। ২০০৩ সালে ডাচ কোচ লুই ফন গালকে মৌসুমের মাঝখানে বরখাস্ত করা হয়েছিল। এরপর ফ্রাঙ্ক রাইকার্ড ও টাটা মার্টিনোকে ছাঁটাই করা হলেও সেটা মৌসুম শেষে। এর পরও ছাঁটাইয়ের গুঞ্জন চলছিলই। এর মধ্যে সৌদি আরবে সুপার কোপার সেমিতে অ্যাথলেটিকোর কাছে হেরে ছিটকে যায় বার্সেলোনা। এখানেই যেন ধৈর্যচ্যুতি ঘটে বার্সার। ভালভার্দের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে তারা। জাভির সঙ্গে বার্সা কর্তা এরিক আবিদালের সাক্ষাৎ সে ইঙ্গিতই দিয়েছিল।

গতপরশুই জাভি পরিস্কার জানিয়ে দেন, মৌসুমের মাঝপথে দায়িত্ব নেওয়া তার পক্ষে সম্ভব নয়। কাতারের ক্লাব আল-সাদের কোচ হিসেবে কাজ করছেন তিনি। বার্সার আরেক টার্গেট ছিলেন নেদারল্যান্ডসের বর্তমান কোচ রোনাল্ড কোয়েম্যান। তিনিও মৌসুমের মাঝপথে দায়িত্ব নিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। বার্সার পক্ষ থেকে এসব যোগাযোগ যখন চলছিল, তখন অনেকটা অসহায়ই মনে হচ্ছিল ভালভার্দেকে। বার্সা কর্তাদের এমন কর্মকাণ্ডে বিরক্ত হয়ে গতপরশু আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা পর্যন্ত মুখ খোলেন, 'বিষয়টি নিয়ে নোংরামো করছে বার্সা। তাদের উচিত বর্তমান কোচকে নূ্যনতম সম্মানটুকু দেওয়া।' সাবেক গ্রেট ইনিয়েস্তার এই কথা সম্ভবত বার্সা কর্তাদের ওপর বেশ প্রভাব ফেলে। তাই তারা আর বিষয়টি ঝুলিয়ে রাখেননি। গতপরশু গভীর রাতেই নতুন কোচ নিয়োগ দিয়ে আলোচনার সমাপ্তি টেনেছেন।