পিএসএলের পাকিস্তান ফেরা

প্রকাশ: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক

অবশেষে পাকিস্তানে ফিরল পিএসএল। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা টিম-বাসে জঙ্গি হামলার পর ঘরোয়া এই টুর্নামেন্ট দূরে থাক, বহু আন্তর্জাতিক সিরিজও দেশের বাইরে খেলতে হলো পাকিস্তানকে। দীর্ঘদিন তাদের হোম ভেন্যুর আসনে ছিল সংযুক্ত আরব আমিরাত। কখনও আবুধাবি, কখনও শারজাহ, আবার কখনও দুবাইয়ে হতো ম্যাচগুলো। অনেক জল্পনা-কল্পনার পর আজ থেকে শুরু হওয়া পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) পঞ্চম আসরের সব ম্যাচই হবে পাকিস্তানের মাটিতে। যদিও গত তিন আসরে তারা কয়েকটি ম্যাচ নিজ দেশে নিয়ে আসে। প্রথমবার পরিস্থিতি ছিল পুরো উল্টো। যে কারণে পিএসএলের একটা ম্যাচও পাকিস্তানে হয়নি। পরের বার ২০১৬-১৭ আসরে কেবল ফাইনাল হয় লাহোরে। ২০১৭-১৮ মৌসুমে চার-ছক্কার এই টুর্নামেন্টের শেষ তিন ম্যাচ গড়ায় পাকিস্তানে। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ মৌসুমে শেষ আট ম্যাচই করাচিতে অনুষ্ঠিত হয়। এবার পুরো আসর হবে স্বাগতিক দেশটিতে।

ষ এবারও নেই বাংলাদেশি

গত আসরেও ছিলেন না কেউ। এবারও নেই। যদিও ড্রাফটে বেশ কয়েকজন নাম দিয়েছিলেন। কিন্তু কেউই এবার দল পাননি। সর্বশেষ ২০১৮ সালে পিএসএলে বাংলাদেশ থেকে খেলেছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান, তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। এদিকে পিএসএলের জন্যই বাংলাদেশকে ভেঙে ভেঙে পাকিস্তান সফরে যেতে হচ্ছে।

ষ মাঠ পর্যন্ত নিরাপত্তা

ক'দিন আগে কোয়েটায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছেন। পিএসএল শুরুর আগে এমন জঙ্গি হামলায় আরও কঠিন অবস্থা হাতে নিল পাকিস্তান। বিদেশি খেলোয়াড়দের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিচ্ছে তারা। টিম-বাস, ড্রেসিংরুমের আশপাশ, টিম হোটেলের চারপাশ, এমনকি মাঠের অনুশীলনে দেওয়া হচ্ছে নিরাপত্তা। এ নিয়ে পিসিবি সভাপতি এহসান মানিও উচ্ছ্বসিত, 'সবাই আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামতে পারবে। আর দর্শকও টুর্নামেন্ট উপভোগ করতে অধীর অপেক্ষায় আছে।'

ষ চোখ থাকবে যাদের ওপর

দেশি ছাড়াও এবার বেশ কয়েকজন বিদেশি তারকা আলো ছড়াতে পারেন পিএসএলে। যাদের মধ্যে আলোচনায় দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন, অস্ট্রেলিয়ার শেন ওয়াটসন ও ক্রিস লিন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের কার্লোস ব্রাথওয়েট এবং ইংল্যান্ডের অ্যালেক্স হেলস ও জেসন রয় উল্লেখযোগ্য। এর বাইরে চোখ থাকবে রিলে রুশো, ড্যারেন সামি, লুক রনকি, কলিন মুনরো, ডেভিড মালান, অ্যালেক্স হেলস, কাইরন পোলার্ডের মতো তারকাদের ওপর।