উন্নতি খাতুনকে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ লাখ টাকা অনুদান

প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

২০১৭ সালে বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে হয়েছিলেন সেরা খেলোয়াড়। চলতি বছরের শুরুতে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়া উন্নতি খাতুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে নিয়েছিলেন স্বর্ণপদক। করোনাভাইরাসের কারণে ঝিনাইদহের শৈলকূপায় উন্নতিদের ঘরের চুলায় আগুন জ্বলছিল না। আর্থিক কষ্টের কারণে একবেলা খাবার জোগাড় করতে পারেনি তারা। এমন খবরের পর নারী ফুটবলার উন্নতির সাহায্যে এগিয়ে আসেন অনেকেই। আর উন্নতির পরিবারের কষ্টের খবরটি শোনার পরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এগিয়ে আসেন। তাকে পাঁচ লাখ টাকা প্রদানের ঘোষণা দেন। গতকাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত পাঁচ লাখ টাকার চেক উন্নতির হাতে তুলে দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। এ ছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রদত্ত ২৪ হাজার টাকার মাসিক ক্রীড়া ভাতার চেকও উন্নতির হাতে তুলে দেন। এ সময় যুব ও ক্রীড়া সচিব মো. আখতার হোসেন, বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজির আহমেদ ও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মো. মাসুদ করিম উপস্থিত ছিলেন।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, 'এটি আমাদের সৌভাগ্য যে, আমরা এমন একজন ক্রীড়াবান্ধব প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। তিনি করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত খেলোয়াড়দের সহায়তা করতে তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। এ ছাড়া তিনি অসহায় দুস্থ ক্রীড়াসেবীদের জন্য বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশনকে ১০ কোটি টাকা প্রদান করেছেন।' প্রধানমন্ত্রী ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে উদীয়মান ফুটবলার উন্নতি খাতুন বলেন, 'আমি খুবই আনন্দিত যে, প্রধানমন্ত্রী আমার পরিবারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। আমি দারুণভাবে উৎসাহিত। আমি দেশের জন্য সেরাটাই দেওয়ার চেষ্টা করব। আমি প্রধানমন্ত্রী ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।'