১৩ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল। করোনাভাইরাসের কারণে এবার শুধু ঢাকার আশপাশে চারটি ভেন্যুতে লিগের খেলাগুলো আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। কিন্তু মাঠ খেলার উপযুক্ত না হওয়ায় নরসিংদীর মোসলেহ উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামকে বাদ দিয়েছে বাফুফে। এই স্টেডিয়ামকে হোম ভেন্যু হিসেবে চেয়েছিল সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। কিন্তু নরসিংদীর ভেন্যুটি বাদ পড়ায় এখন পেশাদার লিগ কমিটির হাতে আছে তিনটি ভেন্যু- বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, কুমিল্লার ভাষাসৈনিক ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়াম এবং টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্টেডিয়াম। তবে বাফুফে চাইছে চারটি ভেন্যুতেই খেলা আয়োজন করতে। তাই প্রথমে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামকে বাদ দিলেও এ ভেন্যুটি পেতে দেনদরবার শুরু করে দিয়েছে ঘরোয়া ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। লিগ শুরুর এক সপ্তাহেরও বাকি নেই, নতুন করে ভেন্যু নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। অবস্থার দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, এবার তিনটি ভেন্যুতেই হচ্ছে প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ।

করোনার কারণে খরচ কমাতে এবার গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম, নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়াম, সিলেট জেলা স্টেডিয়াম এবং চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামকে ভেন্যুর তালিকা থেকে বাদ দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। গত মৌসুমে শেখ রাসেলের হোম ভেন্যু ছিল সিলেট। এবার তারা চাইছে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। এ ভেন্যুটি নিজেদের হোম ভেন্যু চেয়ে আবেদন করেছে শেখ জামাল, রহমতগঞ্জ, সাইফ ও বাংলাদেশ পুলিশ। ইতোমধ্যে টঙ্গীকে হোম ভেন্যু হিসেবে পেয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। মোহামেডান ও বসুন্ধরা কিংসের হোম ভেন্যু কুমিল্লার ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়াম। যথারীতি ঢাকা আবাহনীর হোম ভেন্যু বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম।

মন্তব্য করুন