মোহামেডানের মাঠে সাইফের হাসি

প্রকাশ: ২২ জানুয়ারি ২০২১

ক্রীড়া প্রতিবেদক

মোহামেডানের মাঠে সাইফের হাসি

কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে মোহামেডানের বিপক্ষে প্রথম গোলের পর গোলদাতা আরিফুরকে নিয়ে সাইফ স্পোর্টিংয়ের খেলোয়াড়দের উল্লাস বাফুফে

বছরের প্রথম সপ্তাহে ফেডারেশন কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে সাইফের কাছে হেরে গিয়েছিল মোহামেডান। তিন সপ্তাহ বাদে প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের হোম ভেন্যুতে তার প্রতিশোধ নেওয়া যায় কিনা, এমন আবহ ছিল ম্যাচের আগে। কিন্তু কুমিল্লা শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে প্রথম খেলতে নেমে আবারও হেরেছে মোহামেডান। ব্যবধান ১-২ গোলের। গতকাল সাইফের মতো জয় পেয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী এবং শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। চট্টগ্রাম আবাহনী ১-০ ব্যবধানে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে, আর শেখ জামাল ২-১-এ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রকে হারিয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে কুমিল্লায় মোহামেডান হেরেছে সাইফের তিন মিনিটের ঝড়ের কাছে। ৪৩ মিনিটে সাইফ স্পোর্টিংয়ের আরিফুর রহমান নিজ দলের প্রথম গোলটি করেন। এর তিন মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলেন নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় জন ওকোলি। দ্বিতীয়ার্ধে লড়াই করলেও দুই গোল আর শোধ দিতে পারেনি মোহামেডান। ৬০ মিনিটের মাথায় অধিনায়ক উরিউ নাগাতার গোলে ব্যবধানই কমে শুধু। নতুন মৌসুমে কুমিল্লা স্টেডিয়ামে প্রথম ম্যাচ উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ম্যাচের আগে। বেলুন উড়িয়ে খেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর। শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামকে মোহামেডানের পাশাপাশি বসুন্ধরা কিংসও হোম ভেন্যু বানিয়েছে। আগামীকাল ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে খেলবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা।

এ দিন প্রিমিয়ার লিগের অন্য দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। দিনের প্রথম খেলায় আরামবাগের মুখোমুখি হয় চট্টগ্রাম আবাহনী। ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নিক্সন গুইলের্মোর ৩০তম মিনিটে দেওয়া গোলের সুবাদে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা। এটি লিগে চট্টগ্রাম আবাহনীর প্রথম জয়। প্রথম ম্যাচে শেখ জামালের কাছে ১-২-এ হেরেছিল তারা। অন্যদিকে টানা দুই ম্যাচেই হারল আরামবাগ। প্রথম ম্যাচে মোহামেডানের কাছে ০-৩-এর পর এবার চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে ০-১। ওদিকে লিগে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা মুক্তিযোদ্ধাও মাঠ ছাড়ে হার নিয়ে। ওমর জোবে ও সলোমন কিংয়ের জোড়া গোলে শেখ জামাল তাদের ২-১-এ হারায়। একটি গোল শোধ দেন মেহেদি হাসান রয়েল।