মোহামেডানের ভোটার সেই সাঈদ!

প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ক্রীড়া প্রতিবেদক

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে নাম আসে একেএম মুমিনুল হক সাঈদের। ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের একটি অংশ ক্যাসিনোর জন্য তারই চাপে ভাড়া দিয়েছিলেন মতিঝিলপাড়ার ক্লাবটির কর্মকর্তারা; এমনটাই চাউর হয়েছিল। ক্যাসিনোকাে নাম ওঠার পর থেকেই পলাতক আরামবাগ ক্লাবের সভাপতি সাঈদ। ৬ মার্চ অনুষ্ঠেয় মোহামেডানের নির্বাচনে ভোটার হয়েছেন সেই সাঈদ। তার সঙ্গে ভোটার হয়েছেন প্রতারণা মামলার আসামি শফিউল্লাহ আল মুনীরও। ২১৩ জন সদস্য দিয়ে লিমিডেট কোম্পানিতে যাত্রা শুরু করা মোহামেডানের খসড়া তালিকায় নতুন মুখ আরও ১২৯ জন। এর মধ্যে মোহামেডানের ভোটার হয়েছেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর পরিচালক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি ছাড়াও আবাহনীর আরেক কর্মকর্তা ডা. ইসমাইল হায়দার মল্লিকও রয়েছেন ভোটার তালিকায়। সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো, খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি না টানা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও হয়েছেন মোহামেডানের ভোটার। একজন নিয়মিত খেলোয়াড়ের সদস্য হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম! খসড়া ভোটার তালিকায় ৩১০ নম্বরে রয়েছে সাকিবের নাম। তবে ১২৯ জন সদস্য পদ পেলেও পরিচালক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না। স্থায়ী সদস্য হয়েছেন প্রয়াত বাদল রায়ের মেয়ে গঙ্গোঁত্রী রায় বৃষ্টি।

২০১১ সালে মোহামেডান লিমিটেড কোম্পানিতে পরিণত হয়। দু'বছর মেয়াদি পরিচালনা পর্ষদ ২০১৩ সালে মেয়াদোত্তীর্ণ হয়। তার পর থেকে আর নির্বাচন হয়নি। ৬ মার্চ অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হবে ৪ মার্চ। ২৪ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র বিক্রি হবে। ১-৩ মার্চ মনোনয়নপত্র দাখিল এবং প্রত্যাহারের সময় ধার্য হয়েছে। একজন সভাপতি ও ১৬ জন পরিচালক পদে নির্বাচন হবে।