বঙ্গবন্ধুতে ছয় গোলের থ্রিলার

প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ক্রীড়া প্রতিবেদক

গোল, পাল্টা গোল। একবার নয়, তিন-তিনবার এমন দৃশ্য দেখা গেছে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব এগিয়ে যাওয়ার পর সেটা পরিশোধ করে বাংলাদেশ পুলিশ। প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে গতকাল হয়েছে ছয় গোলের থ্রিলার। রোমাঞ্চকর এ লড়াইটি ৩-৩ গোলে অমীমাংসিত হয়েছে। এবারের আসরে দুর্দান্ত শুরু করা শেখ জামাল এ নিয়ে টানা চার ম্যাচে ড্র করে শিরোপা লড়াই থেকে কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে। ৯ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে শফিকুল ইসলাম মানিকের দল। সমান ম্যাচে ৯ পয়েন্ট পাওয়া পুলিশের অবস্থান আট নম্বরে। আর এক ম্যাচ বেশি খেলা বসুন্ধরা কিংস ২৮ পয়েন্ট নিয়ে আছে লিগ টপারে। একই স্টেডিয়ামে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের মধ্যকার দিনের আরেক ম্যাচ গোলশূন্যভাবে শেষ হয়েছে।

টানা তিন ড্র করা শেখ জামাল ম্যাচের ১০ মিনিটে এগিয়ে যায়। সুলাইমান সিল্লাহর পাস বক্সের মধ্যে খুঁজে নেয় ওমর জোবেকে। নিখুঁত শটে বাংলাদেশ পুলিশ গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি। ৩৩ মিনিটে অসাধারণ এক গোল করে পুলিশকে সমতায় ফেরান কিরগিজস্তান মিডফিল্ডার আখমেদোভ। ৩০ গজ দূর থেকে তার নেওয়া শট শেখ জামাল গোলরক্ষক জিয়াউর রহমানের মাথার ওপর দিয়ে চলে যায় জালে। অবশ্য আগেই পোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে আসেন জিয়া। সাত মিনিট পর আবারও এগিয়ে যায় জামাল। জোবের নিচু শট ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে না পারা পুলিশের আরিফ বল তুলে দেন ওতাবেকের পায়ে। নিচু শটে লক্ষ্যভেদ করেন উজবেকিস্তানের এ ফুটবলার। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ফ্রেডরিক পোডার গোলে সমতা আনে পাকির আলীর দল। দ্বিতীয়ার্ধে হয়েছে আরও দুই গোল। ৪৯ মিনিটে সিল্লাহর শট পোস্টে লেগে ফিরে আসার পর ফাঁকায় থাকা সলোমন কিং ফিরতি শটে এগিয়ে নেন জামালকে। আর ৭০ মিনিটে বক্সের জটলার ভেতর থেকে গোল করে পুলিশকে সমতায় ফেরান মোহাম্মদ জুয়েল। বাকি সময়ে আর কোনো গোল হয়নি।