গত ফেব্রুয়ারিতে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতে আসা ক্রিকেটারদের নিয়ে অনেক পরিকল্পনা থাকলেও করোনার কারণে তেমন কিছুরই বাস্তবায়ন ঘটেনি। বিশ্বজয়ী সেই যুবাদের এবং ভবিষ্যতে জাতীয় দলে যারা প্রতিনিধিত্ব করবেন বলে সম্ভাবনা- তাদের নিয়ে বিসিবি তৈরি করেছে বাংলাদেশ ইমার্জিং টিম। উঠতি ক্রিকেটারদের এ দলটি আজ চার দিনের ম্যাচ খেলতে নামছে আয়ারল্যান্ড 'এ' দলের বিপক্ষে। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ইমার্জিং টিমকে নেতৃত্ব দেবেন ২০১৮ যুব বিশ্বকাপের অধিনায়ক সাইফ হাসান, তার ডেপুটি ২০২০ যুব বিশ্বকাপের অধিনায়ক আকবর আলী।

সাইফের নেতৃত্বাধীন দলটিতে রাখা হয়েছে ইয়াসির আলী রাব্বির পাশাপাশি জাতীয় দলের হয়ে খেলা এবাদত হোসেন, সৈয়দ খালেদকেও। মূলত খেলার মধ্যে ব্যস্ত রাখতেই নির্বাচকদের এমন ভাবনা। এ ছাড়া আকবরের বিশ্বকাপ-অভিযানের সতীর্থ মাহমুদুল হাসান জয়, তৌহিদ হৃদয়, শামিম পাটোয়ারী, রাকিবুল হাসান, শাহাদাত হোসেন, তানজিদ হাসান তামিমরাও আছেন। পারভেজ হোসেন ইমন প্রাথমিক দলে থাকলেও চোটের কারণে ছিটকে গেছেন, পুরো ফিট না থাকায় খেলা হবে না আমিনুল ইসলাম বিপ্লবেরও। রিশাদ হোসেন, আনিসুল ইসলাম ইমন, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধসহ তিন ফরম্যাটের জন্য মোট ২০ ক্রিকেটারকে ইমার্জিং দলটির স্কোয়াডভুক্ত করা হয়েছে। বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার আবু ইমাম কাওসারের মতে, আয়ারল্যান্ড সিরিজটি তরুণ ক্রিকেটারদের নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে, 'আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রবেশের জন্য যে প্রস্তুতিটা দরকার আমি মনে করছি, এটা একটা বড় সুযোগ।' চট্টগ্রামের মাঠে বসে ইমার্জিং দলের খেলাটি দেখার কথা আছে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর। তিনিও এটিকে তরুণদের 'প্রমাণের মঞ্চ' হিসেবে দেখছেন, 'এই সুযোগ ওদের জন্য অনেক বড়। সাধারণত এতজন তরুণ ক্রিকেটার একসঙ্গে অন্য একটা দেশের 'এ' দলের সঙ্গে খেলার সুযোগ পায় না। এখানে ওরা পারফর্ম করতে পারলে ভবিষ্যতের জন্য অনেক অনুপ্রাণিত হবে। আমরাও নজরে রাখতে পারব।' চার দিনের ম্যাচের পর পাঁচটি একদিনের ম্যাচ ও দুটি টি২০ও খেলবে বাংলাদেশ ইমার্জিং ও আয়ারল্যান্ড উলভস নামের আইরিশ 'এ' দল।

মন্তব্য করুন