উইন্ডিজ সফরের জন্য অস্ট্রেলিয়ার ২৩ সদস্যের সীমিত ওভারের প্রাথমিক দলে ফিরেছেন স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও প্যাট কামিন্স। কিন্তু করোনা মহামারির এই সময়ে ভ্রমণ জটিলতার জন্য জুলাইয়ের এই সফরের দলে রাখা হয়নি অস্ট্রেলিয়ান ওয়ানডে দলের নিয়মিত সদস্য মারনস ল্যাবুশেনকে। সফরে ৫টি টি২০ ও ৩টি ওয়ানডে খেলবে অস্ট্রেলিয়া।

করোনার এই সময়ে এক দেশ থেকে আরেক দেশে ভ্রমণ বেশ জটিল হয়ে পড়েছে। এই যেমন আইপিএল স্থগিত হওয়ার পর মালদ্বীপে ১৪ দিন থেকে তারপর গত সোমবার দেশে ফিরেছেন অস্ট্রেলিয়ার ৪০ ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ ও ধারাভাষ্যকার। বর্তমানে গ্ল্যামারগনের হয়ে ইংল্যান্ডে কাউন্টি ক্রিকেটে ব্যস্ত থাকা ল্যাবুশেনকেও এমন জটিল পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হবে বলেই এই সফর থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, কভিড পরিস্থিতিতে 'লজিস্টিক্যাল' জটিলতায় ল্যাবুশেনকে উইন্ডিজ সফরে রাখা হয়নি। অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হন্স বলেন, 'মার্নাসকে যারা চেনেন, তারা সবাই জানে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে খেলার জন্য যে কোনো কিছু করতে প্রস্তুত সে। কিন্তু নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকা পরিস্থিতির কারণে দলে থাকতে না পেরে সে ভীষণ হতাশ। একটি সমাধান খুঁজে বের করার জন্য আমরা তার সঙ্গে কথা বলেছি, অসংখ্য বিকল্প ভেবে দেখেছি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তার ইংল্যান্ডে থাকাটাই বাস্তবসম্মত মনে হয়েছে।' তিনি আরও যোগ করেন, 'বৈশ্বিক মহামারির মাঝে না হলে সে অবশ্যই সফরে থাকত।'\হসফরে অস্ট্রেলিয়া বার্বাডোজে তিনটি ওয়ানডে এবং সেন্ট লুসিয়ায় পাঁচটি টি২০ খেলবে। ভারতে অনুষ্ঠেয় টি২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্যই অসিদের এই সফর। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, উইন্ডিজ সফর শেষে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ যাওয়ার সম্ভাব্যতা নিয়েও তারা আলোচনা করছে।

মন্তব্য করুন