২০১৯ সালের জুনে নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত এই বিশ্ব আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ পদক জিতে সরাসরি টোকিও অলিম্পিকে খেলার টিকিট পেয়েছিলেন রোমান সানা। এবার যুক্তরাষ্ট্রের ইয়াংটন শহরে অনুষ্ঠিত একই প্রতিযোগিতায় তাই রোমানকে ঘিরেই প্রত্যাশা বেশি ছিল। কিন্তু রিকার্ব পুরুষ ব্যক্তিগত এককে কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে হতাশ করেছেন দেশসেরা এ তীরন্দাজ। বাছাইয়ে ৭০ মিটার দূরত্বে ৭২টি তীর ছুড়ে ৭২০ এর মধ্যে ৬৩৬ স্কোর করা রোমান হয়েছেন ৪৬তম। তার মঞ্চে আলো ছড়িয়েছেন বাংলাদেশের আরেক আরচার রামকৃষ্ণ সাহা। তিনি ৬৪২ স্কোর করে হয়েছেন ২৭তম। হাকিম আহমেদ রুবেল ৬৩৩ স্কোর গড়ে হয়েছেন ৫০তম।

গত বিশ্ব আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে ৬৭৬ স্কোর গড়েছিলেন রোমান সানা। এবার টোকিও অলিম্পিকের চেয়েও কম স্কোর করেন তিনি। টোকিও অলিম্পিকে বাছাইপর্বে ৬৪৯ স্কোর গড়ে রোমান হয়েছিলেন ৪৮তম। রোমানের বাছাইয়ের সেরা স্কোর হলো ৬৮১। ২০১৯ সালে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে এশিয়া কাপে এই স্কোর গড়েছিলেন তিনি। রিকার্ভ নারী এককে ৫৫১ স্কোর করে ৭২তম হয়েছেন বিউটি রায়। রিকার্ভ পুরুষ দলগত ইভেন্টে ২৬টি দলের মধ্যে বাংলাদেশ (রাম কৃষ্ণ সাহা, মো. রোমান সানা ও মোহাম্মদ হাকিম আহমেদ রুবেল) ১৯১১ স্কোর করে ১২তম হয়েছে। রিকার্ভ মিশ্র দলগত ইভেন্টে ৩২টি দলের মধ্যে বাংলাদেশ (রাম কৃষ্ণ সাহা ও বিউটি রায়) ১১৯৩ স্কোর করে ২৮তম হয়েছে। কম্পাউন্ড পুরুষ বিভাগে ৬৭৪ স্কোর করা অসীম কুমার দাস হয়েছেন ৫৮তম। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় দিয়া সিদ্দিকী খেলতে পারছেন না বিশ্ব আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে।

মন্তব্য করুন