ওয়ানডে হোক আর টি২০ হোক, বিশ্বকাপে ভারতের কাছে হারটা যেন পাকিস্তানের বাঁধা। তবে আসন্ন টি২০ বিশ্বকাপে এই ইতিহাস বদলাতে মরিয়া পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। ২৪ অক্টোবর দুবাইয়ে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করবে পাকিস্তান। ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করতে চান বাবর।

এবারই প্রথম টি২০ বিশ্বকাপ খেলবেন বাবর, তাই অধিনায়ক হিসেবেও প্রথম। এই সংস্করণে এখন পর্যন্ত পাকিস্তানকে ২৮ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ১৫টি জয় পেয়েছেন। বিশ্বকাপের খেলতে আরব আমিরাতের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে বাবর বলেন, 'অধিনায়ক হিসেবে টি২০ বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছি বলে আমি ভীষণ গর্বিত। প্রতিটি ম্যাচের চাপ ও তীব্রতা সম্পর্কে আমরা জানি, বিশেষ করে প্রথম ম্যাচ। আশা করি, প্রথম ম্যাচটি জিততে পারব এবং ছন্দটা ধরে রেখে সামনে আগাতে পারব।' ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাতবার ও টি২০ বিশ্বকাপে পাঁচবার ভারতের মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান। সবক'টিতেই জয় পেয়েছে ভারত। তবে অতীত নিয়ে ভাবছেন না ২৬ বছর বয়সী বাবর, 'আমরা অতীত নয়, ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবছি। সেটার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমি পুরোপুরি আত্মবিশ্বাসী যে, আমরা প্রস্তুত এবং ভালো ক্রিকেট খেলব।' দুবাই স্টেডিয়ামে নিজেদের রেকর্ডও বাবরের পক্ষে। এই মাঠে ২০১৬ সাল থেকে ছয় ম্যাচ খেলে হারের মুখ দেখেনি পাকিস্তান। এ বিষয়টিও আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে বাবরকে, 'গত তিন-চার বছর ধরে আমরা আরব আমিরাতে নিয়মিত খেলছি। তাই এখানকার কন্ডিশন সম্পর্কে আমরা ভালোভাবে জানি। আমরা জানি উইকেট কেমন আচরণ করবে। নির্দিষ্ট দিনে যারা ভালো ক্রিকেট খেলবে, তারাই জিতবে। আমার কাছে যদি জানতে চান, বলব আমরাই জিতব।' অবশ্য আরব আমিরাতের মাঠগুলো ভারতের ক্রিকেটারদের কাছেও অপরিচিত নয়। আইপিএল খেলার কারণে মাস খানেক ধরে তারা সেখানেই আছেন।

মন্তব্য করুন