জুনেও বিক্রি বেশি বিদেশিদের

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরের শেষ মাসেও বিদেশি বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কেনার তুলনায় বিক্রি করেছেন বেশি। শুধু তাই নয়, মে মাসের তুলনায় জুন মাসে তাদের লেনদেনের পরিমাণও উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। এ নিয়ে টানা চতুর্থ মাসে তারা কেনার চেয়ে শেয়ার বিক্রি করেছেন বেশি। একই সঙ্গে মোট লেনদেনের পরিমাণও কমেছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর মাধ্যমে বিদেশিদের পোর্টফোলিও থেকে মোট ৬০০ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে, যা এ স্টক এক্সচেঞ্জের গত মাসের মোট কেনাবেচার মাত্র ৩ দশমিক ৯২ শতাংশ। জুনের ১৬ কার্যদিবসে প্রধান এ শেয়ারবাজারে সর্বমোট সাত হাজার ৬৫০ কোটি টাকা মূল্যের শেয়ার কেনাবেচা হয়।

গত মে মাসে বিদেশিরা ৭০৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা করেছিলেন। ওই মাসের লেনদেনে বিদেশিদের অংশ ছিল মোটের ৪ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এর মধ্যে ৩১৯ কোটি লাখ টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে বিক্রি ছিল ৩৮৪ কোটি ৯৮ লাখ টাকার। মে মাসে ডিএসইতে মোট ৭ হাজার ৭১৬ কোটি টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়।

সর্বশেষ গত জুনে ৬০০ কোটি টাকার শেয়ার কেনাবেচার মধ্যে বিদেশিরা শেয়ার কিনেছেন ২৯৪ কোটি ৯৪ লাখ টাকার। অন্যদিকে বিক্রি করেছেন ৩০৫ কোটি ৪৬ লাখ টাকার। অর্থাৎ কেনার তুলনায় ১০ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করেছিলেন।

বিদেশিদের শেয়ার লেনদেন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সর্বশেষ চার মাসে এক হাজার ২৬৫ কোটি টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে প্রায় এক হাজার ৬০১ কোটি টাকার শেয়ার বিক্রি হয়েছে। অর্থাৎ তারা বিনিয়োগ প্রত্যাহার করেছেন ৩৩৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকার।

তবে চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসের হিসাবে এখনও বিদেশিদের শেয়ার কেনার পরিমাণ টাকার অঙ্কে বিক্রির পরিমাণের চেয়ে বেশি। গত জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত বিদেশি বিনিয়োগকারীরা মোট দুই হাজার ৩৪৭ কোটি টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে দুই হাজার ১৮৪ কোটি টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন। অর্থাৎ নিট বিনিয়োগ করেছেন প্রায় ১৬৩ কোটি টাকার। এ কারণ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বছরের প্রথম দুই মাসে তারা ৪৯৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকার নিট বিনিয়োগ করেছিলেন। ওই দুই মাসে এক হাজার ৮২ কোটি টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে প্রায় ৫৮৪ কোটি টাকার শেয়ার বিক্রি করেছিলেন।

এদিকে সদ্য সমাপ্ত অর্থবাজারে বিদেশিরা ডিএসইর মাধ্যমে মোট প্রায় চার হাজার ৩৬ কোটি টাকার শেয়ার কেনেন। আর বিক্রি করেন প্রায় চার হাজার ২০২ কোটি টাকার শেয়ার।

অপর শেয়ারবাজার সিএসইতে গত মাসে ২১ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে, যা মে মাসে ছিল মাত্র এক কোটি ৯১ লাখ টাকার। গত মাসে বিদেশিরা স্কয়ার ফার্মার তিন লাখ ৫৯ হাজার ৫৭৭টি শেয়ার ২৫৫ টাকা ৯০ পয়সা দরে মোট ৯ কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যে লেনদেন করেছিলেন। এ ছাড়া গ্রামীণফোনের সাড়ে তিন লাখ শেয়ার সর্বনিম্ন ৩৫৮ টাকা ৬০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৩৬০ টাকা ৬০ পয়সা দরে কেনাবেচা করেছিলেন, যার মোট বাজারমূল্য ছিল ১২ কোটি ৬০ লাখ টাকা।