এইচএসসি পরীক্ষা

ধর্মপাশায় পরীক্ষার হলে নকল সরবরাহের অভিযোগ

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮      

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় এইচএসসি পরীক্ষার একটি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের মাঝে বহিরাগতরা নকল সরবরাহ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ সময় একজন কর্তব্যরত কক্ষ পরিদর্শক পায়ে আঘাত পেয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার ধর্মপাশা উপজেলার বাদশাগঞ্জ পাবলিক হাইস্কুল পরীক্ষা কেন্দ্রের বাদশাগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ইংরেজি প্রথমপত্র পরীক্ষা চলাকালে এমনটি ঘটেছে।

জানা যায়, ওইদিন পরীক্ষা শেষ হওয়ার প্রায় ৩০ মিনিট আগে বহিরাগত কিছু লোক পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করে এবং তিন নম্বর কক্ষের পরীক্ষার্থীদের মাঝে নকল সরবরাহ করতে থাকে। বহিরাগতরা পরীক্ষার্থীদের মাঝে তাড়াহুড়া করে নকল সরবরাহের সময় ওই কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত কক্ষ পরিদর্শক সাদেক আহমেদ বাম পায়ে আঘাত পেয়েছেন।

শিক্ষক সাদেক আহমেদ জানান, তিন নম্বর কক্ষে চারজন পরিদর্শক দায়িত্ব পালন করছিলেন। ওই সময় পরীক্ষার খাতার ওএমআর শিট গোছানোর কাজ চলছিল। বহিরাগতদের থেকে পরীক্ষার্থীরা নকল নিতে তাড়াহুড়া করার সময় তিনি বাম পায়ে আঘাত পেয়েছেন। পায়ের ব্যথার কারণে পরবর্তী পরীক্ষায় দাঁড়িয়ে থেকে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

পরীক্ষা কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার জাহাঙ্গীর হোসেন মোহাম্মদ ফারুক জানান, পরীক্ষা শেষ  হওয়ার কিছুক্ষণ আগে স্থানীয় কয়েকজন আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মী কেন্দ্রে প্রবেশ করেন। এ সময় তিনি তাদের বাধা দেন। কিন্তু নকল সরবরাহ করা হয়েছে বলে কেউ তাকে জানায়নি। এমনকি কোনো কক্ষ পরিদর্শক আহত হয়েছেন বলে তার জানা নেই।

সিলেট শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. কবির আহমেদ বলেন, 'শিক্ষকরা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি কেন্দ্র সচিব, দায়িত্বপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ও ইউএনওকে জানাতে পারতেন। বিষয়টি নিয়ে আজ শনিবার কেন্দ্র সচিবের সঙ্গে কথা বলব।