পৌরসভা উপনির্বাচন গোলাপগঞ্জে ভোটাররা প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন চায়

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি

নির্বাচন এলে প্রতিশ্রুতির অভাব হয় না। প্রতিষ্ঠার ১৮ বছর হয়ে গেল গোলাপগঞ্জ পৌরসভার; কিন্তু প্রধান সমস্যাগুলো অবহেলিতই রয়ে গেল।

নির্বাচন আসে নির্বাচন যায়, ভোটারদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি কেউ বাস্তবায়ন করে না। কথাগুলো বললেন গোলাপগঞ্জ পৌর বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি ছালিক আহমদ চৌধুরী। তিনি মনে করেন উপনির্বাচন হলেও এই নির্বাচনের অনেক গুরুত্ব রয়েছে। ঐতিহ্যবাহী পৌরসভার মূল সমস্যাগুলোয় যে প্রার্থী গুরুত্ব দেবেন তাকেই জনগণ মেয়র নির্বাচিত করবে।

গোলাপগঞ্জ পৌরসভার রুপাইল গ্রামের বাসিন্দা দীনেশ দেবনাথ বলেন, এই পৌরসভার প্রধান সমস্যা হচ্ছে ড্রেনেজ সমস্যা। পৌর এলাকায় সড়ক বাতি দেওয়ার বিধান থাকলেও ৯টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৬টি ওয়ার্ডে সড়ক বাতি নেই। যেসব ওয়ার্ডে সড়ক বাতি দেওয়া হয়েছিল এর মধ্যে বেশিরভাগ জায়গায় বাতি নষ্ট হয়ে ভুতুড়ে অবস্থা বিরাজ করছে।

জনসাধারণের চলাচলের ফুটপাত ব্যবহার উপযোগী করে তোলা পৌর মেয়রের গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। কিন্তু প্রত্যেক মেয়াদে মেয়রের নাম করে অবৈধ ও ভাসমান ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে

উঠে জনসাধারণের চলাচল বিঘ্নিত হয়। তিনি মনে করেন, এখন

যুব শ্রেণির ভোটাররা সচেতন। তাই যে প্রার্থী সঠিক সিদ্ধান্ত দিতে পারবে সে প্রার্থীকেই ভোটাররা নির্বাচিত করবে।

সরকারদলীয় প্রার্থী জাকারিয়া আহমদ পাপলু, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সহসভাপতি মহিউস সুন্নাহ চৌধুরী নার্জিস, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাবেল, পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহীন আগামী ৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য গোলাপগঞ্জ পৌরসভার উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।