উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যানদের দ্বন্দ্ব চরমে

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৯

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

নবীগঞ্জ উপজেলার দুটি ইউনিয়নের দুটি প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগে বিল স্বাক্ষর না করায় উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যানদের মধ্যে চরম দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান সংশ্নিষ্ট প্রজেক্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। এর জেরে গত ২৬ জুন উন্নয়ন সমন্বয় সভা ও আইন-শৃঙ্খলা সভা বর্জন করেছেন ইউপি চেয়ারম্যানরা।

ইউপি চেয়ারম্যানদের অভিযোগ, উপজেলা চেয়ারম্যান তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছেন। এ জন্য তারা উন্নয়ন সমন্বয় সভা ও আইন-শৃঙ্খলা সভা বর্জন করেছেন। তবে উপজেলা চেয়ারম্যান বলেছেন, তিনি কোনো চেয়ারম্যানের সঙ্গে বাজে ব্যবহার করেছেন বা কোনো অনিয়ম-দুর্নীতি করেছেন- প্রমাণ হলে তিনি পদত্যাগ করবেন। তিনি আপসে কখনও কোনো দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেবেন না।

জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের ভুবির বাক চৌশতপুর সড়কের খালের ওপর কালভার্ট নির্মাণে অনিয়ম হলে অভিযোগের ভিত্তিতে ওই প্রকল্পটির বিল এবং কালিয়ার ভাঙ্গা ইউনিয়নের মান্দারকান্দি গ্রামের অঞ্জন পুরকায়স্থের বাড়ির সামনে একটি সড়কে এলজিএসপি ও জেলা পরিষদের বরাদ্দ দিয়ে কাজ করা হয়। কিন্তু ওই সড়কের ওপর এডিপি ফান্ডের বরাদ্দ দেখিয়ে একটি ভুয়া বিল তোলার চেষ্টা করলে উপজেলা চেয়ারম্যান ওই দুটি বিল আটকে দেন। এ নিয়ে দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সঙ্গে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি ইজাজুর রহমান বলেন, দুটি প্রকল্প বিষয়ে তাদের সঙ্গে উপজেলা চেয়ারম্যান বাজে ব্যবহার করেছেন। তাই তারা উন্নয়ন সমন্বয় সভা ও আইন-শৃঙ্খলা সভা বর্জন করেন। তিনি আরও বলেন, ওই প্রকল্পে ভুয়া বিল করার কোনো সুযোগ নেই।