সংবাদ সংক্ষেপ

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯

হবিগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

হ হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া গ্রামে পানিতে ডুবে সাদিক মিয়া (৪) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। সাদিক মিয়া ওই গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে। হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) জিয়াউর রহমান জানান, সাদিক মিয়া খেলাধুলার একপর্যায়ে বাড়ির পাশে একটি পুকুরে পড়ে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে পানিতে তার মৃতদেহ ভেসে উঠে। তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কমলগঞ্জে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি প্রত্যাহারের দাবি

হ কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

জাতীয় গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার কালেঙ্গায় মৌলভীবাজার আঞ্চলিক কমিটির সভায় গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার ও চাল, ডাল, তেল, লবণসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সব জিনিসপত্রের মূল্য কমানোর দাবি করা হয়েছে। গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি মৌলভীবাজার জেলা কমিটির উদ্যোগে গত বুধবার সন্ধ্যায় কালেঙ্গা অনুষ্ঠিত সভা থেকে এই দাবি জানানো হয়। জাতীয় গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি জেলা আহ্বায়ক কমিটির সভাপতি দেলোয়ারা বেগমের সভাপতিত্বে ও নারী নেত্রী আম্বিয়া বেগমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাস।

বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণ

হ ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি

সিলেটের ওসমানীনগরে বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে গোয়ালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে উপজেলার ২১৫টি পরিবারের মাঝে এসব সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন সড়কে ৩৮টি স্ট্রিট লাইটও প্রদান করা হয়। সোলার প্যানেল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান। গোয়ালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবদাল প্রমুখ।

কমলগঞ্জে বন্ধ হলো বাল্যবিয়ে

হ কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সীবাজার ইউনিয়নের সুরানন্দপুর গ্রামের আলমাছ মিয়া ও সিরাজুন বেগমের মেয়ে শামীমা আক্তার (১৪)। সে মুন্সীবাজার কালীপ্রসাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। বছর দুই থেকে লেখাপড়া ছেড়ে দিয়েছে। বৃহস্পতিবার তার বিয়ের দিন ঠিক করা হয়। তবে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দ্রুত হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা পায় শামীমা। স্থানীয়ভাবে নকল জন্মনিবন্ধন তৈরি করে শামীমার বিয়ের আয়োজনে সহায়তা করেছিলেন স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য।