চুনারুঘাটে ৭ লাখ টাকার সেগুন কাঠ উদ্ধার

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার পাহাড়ি সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গাছ ক্রমেই চুরি হতে থাকায় হুমকির মুখে পড়েছে এ বন। চোরেরা বনের মূল্যবান গাছ কেটে পাচার করছে। গত ১৬ আগস্ট রাতে বন বিভাগ ও চুনারুঘাট থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে চুনারুঘাট উপজেলার দক্ষিণ নরপতি গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী মশিউর রহমান চৌধুরী ফয়সল ও তার চাচা মুকিত চৌধুরীর বাড়ির পুকুর থেকে প্রায় ৭ লাখ টাকা মূল্যের বিপুল পরিমাণ চোরাই সেগুন কাঠ উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার কাঠগুলো শায়েস্তাগঞ্জ রেঞ্জ অফিসে রাখা হয়েছে। এদিকে চোরাই কাঠ উদ্ধার হলেও চোরাকারবারিরা ধরাছোঁয়ার বাইরেই থেকে গেছে। তাদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

উদ্ধার চোরাই কাঠগুলো চুনারুঘাট উপজেলার পূর্ব পশ্চিম সংরক্ষিত বনাঞ্চলের বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে চুনারুঘাট বন বিভাগের টহল অফিসার ইনচার্জ শুভময় বলেন, উদ্ধার গাছগুলো রশিদপুর ও কালেঙ্গা বন বিভাগের।

এ ঘটনায় কালেঙ্গা রেঞ্জের রশিদপুর বন বিটের ফরেস্টার হাওলাদার আব্দুল ছালাম বাদী হয়ে ১৯ আগস্ট চোরচক্রের মূল হোতা মশিউর রহমান চৌধুরী ফয়সলের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ কোর্টে বন আইনে মামলা করেছেন।