পরকীয়া প্রেমিকের হাতে খুন হন চা শ্রমিক দিপালী

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আলীনগর চা বাগানে এক নারী শ্রমিকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় আটক ইসহাক মিয়া (৪০) রোববার মৌলভীবাজার আদালতে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে আলীনগর চা বাগানের পাক্কা লাইন শ্রমিক বস্তিতে দীপালি রায় (৪০) নামে নারী চা শ্রমিকের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছিল। এরপর শুক্রবার রাতে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ ইসহাককে গ্রেফতার করে। ইসহাক আলীনগর চা বাগানের সিকান্দর আলীর ছেলে।

কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ভোরে আলীনগর চা বাগানে তিন সন্তানের জননী দীপালি রায়কে নিজ ঘরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। ঘটনাটি রহস্যজনক ভেবে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠায়। এরপর ওই রাতেই একই চা বাগানের চা শ্রমিক ইসহাক মিয়াকে আটক করে পুলিশ। রোববার সকালে মৌলভীবাজার আদালতে পাঠালে সে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে দীপালিকে হত্যার দায় স্বীকার করে।

কমলগঞ্জ থানার এএসআই আব্দুল হামিদ বলেন, আদালতে আসামি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানায়, দীপালির সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি দীপালি আরও পুরুষের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলায় বৃহস্পতিবার রাতে তাকে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে।