ছাতকে মুক্তিযোদ্ধার নাতিকে খুন করে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে খুনিরা। খুন হওয়া তরুণের নাম মেহেদী হাসান রাব্বি। রোববার দুপুরে রাব্বির খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে শহরের প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন রাব্বির মা রুপিয়া বেগম, নোয়ারাই ইউপি সদস্য মফিজ আলী, নোয়ারাই এলাকার সমাজকর্মী নুরুল আলম সাহেব আলী, সাইফুর রহমান, বারাম আলী, জমির আলী প্রমুখ। এর আগে একই দাবিতে কালেক্টরেট চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রাব্বির দাদা ও নানা দু'জনই মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। বাবা আলমগীর হোসেন ১৬ বছর আগে থেকে নিখোঁজ। রাব্বি দোকানে চাকরি করে যা আয় করত, তা দিয়েই মা-বোনসহ তিনজনের সংসার চলত। সে প্রতিবাদী ছিল। নদীতে, সড়কে, নৌপরিবহনে এবং ট্রাক, লেগুনা, সিএনজিতে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত মিয়ার স্বজনদের চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করত সে। গত ২৩ জুলাই ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরি এলাকায় রাব্বিকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়। ২৭ জুলাই তার মা রুপিয়া বেগম বাদী হয়ে ১৭ জনকে আসামি করে ছাতক থানায় মামলা করেন। অথচ দুই সপ্তাহের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এই মামলার কোনো আসামি গ্রেফতার হয়নি।

মন্তব্য করুন