সুনামগঞ্জ জেলা পাসপোর্ট কার্যালয় থেকে প্রতারণার মাধ্যমে দুই রোহিঙ্গা নাগরিকের পাসপোর্ট নেওয়ার চেষ্টা মামলায় জামিন পেয়েছেন পৌর মেয়র নাদের বখত ও জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য কাওসার আলম।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুনামগঞ্জ সদর জোনের বিচারক কুদরত-এ-ইলাহীর আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ পুলিশের কোর্ট পরিদর্শক সেলিম নেওয়াজ।

প্রতারণার মাধ্যমে দুই রোহিঙ্গা নাগরিককে সুনামগঞ্জ পৌরসভা থেকে জন্মসনদ দেওয়ার মামলায় গত বুধবার পৌর মেয়র নাদের বখত, প্যানেল মেয়র হোসেন আহমদ রাসেলসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। ওই মামলায় পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ এবং পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-১) হোসেন আহমদ রাসেল, পৌরসভার সহকারী কর আদায়কারী পীযূষ কান্তি তালুকদার, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধক ও স্যানিটারি পরিদর্শক সেলিম উদ্দিন, মেয়র নাদের বখত ও আইনজীবী কাওসার আলম।

২০১৯ সালের ৪ এপ্রিল সুনামগঞ্জ জেলা পাসপোর্ট কার্যালয়ে নাম ও ঠিকানা পরিবর্তন করে পাসপোর্ট করতে আসেন দুই রোহিঙ্গা।

ছবি তোলা ও আঙুলের ছাপ দিতে গেলে কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়। পরে দুই রোহিঙ্গাসহ ছয়জনকে আটক করা হয়।

মন্তব্য করুন