শুকনো মৌসুমের শেষ সময়ে সুনামগঞ্জের ৪৬টি বিলে খননের কাজ চলছে। কোনো কোনো বিলে নামমাত্র কাজ করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। কোনো কোনোটিতে কাজ শেষ হওয়ার আগেই বিলের তলদেশে ২-৩ ফুট পানি ওঠায় এই কাজের সাফল্য নিয়ে শঙ্কায় স্থানীয়রা।

সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর, দিরাই, ধর্মপাশা, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, জামালগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪৬টি বিল খননের কাজ চলছে। এরমধ্যে ৪৫টি বিল খননের কাজ 'চুক্তিভিত্তিক ভূমিহীন সমিতি'র মাধ্যমে করাচ্ছে স্থানীয় মৎস্য বিভাগ। এজন্য বরাদ্দ ৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। একটি বিল (বিশ্বম্ভরপুরের কানী বিল) মৎস্য অধিদপ্তর থেকে দরপত্রের মাধ্যমে খনন করানো হচ্ছে। এর বরাদ্দ ৩০ লাখ টাকা। বিশ্বম্ভরপুরের পলাশ ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের পাশে খনন হচ্ছে কানী বিল।

আলীপুর গ্রামের তরুণ সমাজকর্মী গোলাম আকরাম বললেন, কানী বিলে এক্সক্যাভেটর দিয়ে সম্প্রতি দু'দিন মাটি খননের কাজ হয়েছে। এখন বিলে ৩ থেকে ৪ ফুট সমান পানি হয়েছে। ঠিকাদারের লোকজন বিলের পাড়ে পাওয়ার পাম্প এনে রেখেছে। তবে কোনো কাজ করছে না। কাজ করতেও পারবে না। অথচ টাকা ঠিকই তুলে নেবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। বিষয়টি মৎস্য বিভাগকে জানানো হয়েছে।

বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মেহেদী হাসান ভুইয়া বললেন, কাগজপত্রে কানী বিলের আয়তন ২১ দশমিক ২১ একর। বাস্তবে ৪-৫ একরের বেশি আয়তন নেই। এই বিল এখন আর খনন করা সম্ভব নয়। এটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে আমিও লিখিত জানাব।

এ বিষয়ে ঠিকাদার অসীম সিংহ ও তার সহায়তাকারী শ্যামলের সঙ্গে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

বিশ্বম্ভরপুরের মাগুরা বিল খননের জন্য তিন লাখ ১১ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। অথচ এই বিল খননের মাটি ফেলার কারণে পুরো হাওরের পানি নিস্কাশন পথ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সেজন্য এলাকাবাসী বাধা দিয়ে বিল খননের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সীমা রানী বিশ্বাস বললেন, 'আমি বিলে বিলে ঘুরছি। আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে কোথাও যাতে অনিয়ম না হয়। যেখানে যেটুকু খনন করা হয়েছে বা হবে এর অতিরিক্ত বিল পাবার কোনো সুযোগ নেই। কানী বিলের খননের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে জানাতে বলেছি। তিনি যেভাবে লিখিত দেবেন, সেভাবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে। বিশ্বম্ভরপুরের মাগুরা বিলের কাজ আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। জামালগঞ্জের দিরাই চাতল লম্বা বিল খননের কাজ শেষ না করলে বিলের টাকা দেওয়া হবে না।'

মন্তব্য করুন