মৌলভীবাজারে পেট জোড়া লাগানো যমজ শিশু হাসি-খুশির চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে ৪০ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছে জেলা প্রশাসন। রোববার বিকেলে বাস ভবন অফিসে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান শিশু দুটির অভিভাবকের হাতে চেক তুলে দেন। এ সময় জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালকসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কমলগঞ্জ উপজেলার সিংড়াউলি গ্রামের জুয়েল মিয়ার স্ত্রী পেট জোড়া লাগানো অবস্থায় হাসপাতালে দুটি মেয়ে সন্তান প্রসব করেন ৫ মে। পরে তাদের মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত ১০ মে চিকিৎসকদের পরামর্শে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকার শিশু হাসপাতালে আনা হয় তাদের। এর আগে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া এ যমজ শিশু দুটির চিকিৎসার্থে ৫০ হাজার টাকা অনুদান দেন।

শিশুদের বাবা পান-সিগারেট বিক্রেতা জুয়েল জানান, শিশু দুটি সুস্থ আছে। ঢাকায় তাদের চিকিৎসা চলছে। প্রাথমিকভাবে তাদের কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে। মেডিকেল বোর্ড গঠন করে তাদের চিকিৎসা শুরুর প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য করুন