সিলেটের বালাগঞ্জে ইটভাটার ম্যানেজার ধীরাজ পাল হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন, হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন দক্ষিণ সুরমার আলমপুরবাসী। বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর উপকণ্ঠ আলমপুরে বিভাগীয় কার্যালয় ও পুলিশের সিলেট রেঞ্জের ডিআইজির কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন হয়। পরে নগরীর ২৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আজম খানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ বরাবর স্মারকলিপি দেয়।

২৮ মে বালাগঞ্জের গহরপুরে কর্মস্থল জেবিসি ইটভাটায় ব্যবস্থাপক ধীরাজ পালকে কুপিয়ে খুন করা হয়। পরদিন নিহতের বড় ছেলে প্রভাকর পাল বাপ্পা অজ্ঞাতপরিচয়দের আসামি করে থানায় মামলা করেন। সাংবাদিক দেবাশীষ দেবুর চাচা নিহত ধীরাজ দক্ষিণ সুরমার আলমপুর এলাকার দিজেন্দ্র পালের ছেলে। এলাকাবাসী ৩০ মে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সামনে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে। তবে ১১ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করতে পারেনি। জেবিসি ইটভাটার একজন অংশীদারসহ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিলেও উল্লেখযোগ্য তথ্য পায়নি পুলিশ।

গতকাল কাউন্সিলর আজম খানের সভাপতিত্বে ও আব্দুল মান্নানের পরিচালনায় মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, ধীরাজ শান্তিপ্রিয় হিসেবে পরিচিত ছিলেন। পুলিশের সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, এ হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে পুলিশ আন্তরিকভাবে কাজ করছে।

বিষয় : ইটভাটা ম্যানেজার খুনি

মন্তব্য করুন