মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে অবস্থিত বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গত ১০ বছরে বিভিন্ন প্রজাতির পাঁচ শতাধিক বন্যপ্রাণী বনে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে করোনার এ সময়েই অবমুক্ত করা হয়েছে ৮০টি বন্যপ্রাণী।

পাশাপাশি বনে খাদ্য সংকট কমাতে বিভিন্ন ধরনের কয়েক হাজার ফলদ বৃক্ষ রোপণসহ পাহাড়ি ছড়ায় মাছের পোনা ও কাঁকড়া অবমুক্ত করে যাচ্ছে বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশন।

২০১১ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয় বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশন। এর পর থেকে ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত ৪৫৬টি বন্যপ্রাণী অবমুক্ত করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত এ ফাউন্ডেশন থেকে ২৮টি লজ্জাবতী বানর,\হ৩৭টি গন্ধগোকুল, ৩১টি মেছো বিড়াল, ২১টি বানর, ১৫টি\হতক্ষক, ১৩৪টি বিভিন্ন প্রজাতির পাখি, পাঁচটি সোনালি\হবিড়ালসহ বনবিড়াল, হিমালয়ান পাম সিভেট, উড়ন্ত কাঠবিড়ালি, বোম্বে টিনকেট এবং শঙ্খিনী, বোড়া, পদ্মগোখরা, অজগর, দুধরাজ, দাঁড়াশ, বিরল লালডোরসহ বিভিন্ন ধরনের সাপ অবমুক্ত করা হয়েছে।

বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক স্বপন দেব সজল বলেন, আহত বন্যপ্রাণীকে সুস্থ করে বনে অবমুক্ত করা হয়। আর এখানে জন্ম নেওয়া প্রাণীগুলো এককভাবে জীবনযাপনে সক্ষম হলেই বনে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে বনে ছাড়ার পরও খাদ্য সংকটে অনেক প্রাণী আবার বনের বাইরে এসে ধরা পড়ে।

বিষয় : প্রাণী ফিরল বনে

মন্তব্য করুন