সুনামগঞ্জের ছাতকে ছেলে বেলাল উদ্দিন হত্যার ছয় বছরের মাথায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত বাবা বাতির আলীও (৬০) এবার মারা গেলেন। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চার দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাতির আলীর সঙ্গে একই গ্রামের একটি পক্ষের জমি-সংক্রান্ত বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। গত সোমবার সন্ধ্যার পর গ্রামের বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে গ্রামের রাস্তায় প্রতিপক্ষের কয়েকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার ওপর হামলা চালায়।\হএরপর গুরুতর আহত বাতির আলীকে প্রথমে উপজেলা সদর হাসপাতাল এবং পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বাতির আলীর বড় ছেলে কাচা মিয়া বলেন, 'প্রতিপক্ষের লোকজন ২০১৫ সালের ২১ নভেম্বর আমার ছোট ভাই বেলাল উদ্দিনকে হত্যা করেছিল। আমরা মামলা করায় তারা বিভিন্ন সময় হুমকি-ধমকি দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত তারা আমার বাবাকে নির্মমভাবে হত্যা করল।'

থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য করুন