হবিগঞ্জ সদর উপজেলার আট ইউনিয়নের মধ্যে চারটিতে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী। বিদ্রোহের ডামাডোলে এবার এগোতে পারল না আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তারা বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করেন।

লোকড়া ইউনিয়নে কায়সার রহমান চশমা প্রতীকে ২৫৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিরুল ইসলাম অটোরিকশা নিয়ে পেয়েছেন ২৫৪৭ ভোট। রিচি ইউনিয়নে আব্দুর রহিম নৌকা প্রতীকে ৭৭৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সারাজ মিয়া আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৭২৩২ ভোট।

তেঘরিয়া ইউনিয়নে এম এ মোতালিব নৌকা প্রতীকে ২৯৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

পইল ইউনিয়নে সৈয়দ মইনুল হক আরিফ ঘোড়া প্রতীকে ৮৪০৪ ভোট নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। গোপায়া ইউনিয়নে আব্দুল মন্নান ঘোড়া প্রতীকে ৫২৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

রাজিউড়া ইউনিয়নে বদরুল করিম দুলাল নৌকা প্রতীকে ৪৪৯০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিজামপুর ইউনিয়নে তাজউদ্দিন আনারস প্রতীক নিয়ে ৬৫৫৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। লস্করপুর ইউনিয়নে মাহবুবুর রহমান হিরো নৌকা প্রতীকে ৪৫০৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদেকুল ইসলাম বলেন, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা ও নবীগঞ্জ উপজেলায় শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মন্তব্য করুন