অনুমতি ছাড়াই উপজেলা পরিষদের পুকুর ভরাটের পর এবার মুন্সীগঞ্জের লৌহজং সরকারি কলেজের জমি দখল করে একতলা ভবন নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারীর বিরুদ্ধে। কলেজ অধ্যক্ষসহ শিক্ষকমন্ডলী এ ভবন নির্মাণে বাধা দিলে তাতেও কর্ণপাত করেননি প্রভাবশালী এই আওয়ামী লীগ নেতা ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান। বাধা উপেক্ষা করেই ক্ষমতার অপব্যবহার করে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে ভবন নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখায় ম্যানেজিং কমিটি জরুরি সভা আহ্বান করলেও কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই মুলতবি হয়ে যায় সভা। পরে শুক্রবার কলেজের ম্যানেজিং কমিটির অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় জরুরি সভায় বাধা উপেক্ষা করে অবৈধভাবে নির্মিত স্থাপনা কলেজ কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। একই সভায় অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মাণ কাজে অভিযুক্ত লৌহজং উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারীর কাছে ভাড়া দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ম্যানেজিং কমিটি।
অন্যদিকে কলেজের জমি দখল করে অবৈধভাবে ভবন নির্মাণকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তার কাছেই ওই ভবন ভাড়া দেওয়া কলেজ ম্যানেজিং কমিটির গৃহীত সিদ্ধান্ত সঠিক হয়নি বলে জানিয়েছেন কলেজের একাধিক সাবেক শিক্ষার্থী।
লৌহজং সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ সূত্র জানায়, কলেজ মাঠ-সংলঘ্ন কলেজের নিজস্ব জমিতে ২৩টি দোকানঘর নির্মাণ করা হয়। মার্কেটের উত্তর প্রান্তের এক নম্বর দোকানটি কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ভাড়া নেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারী। এরপর এক মাস আগে থেকে ভাড়া নেওয়া দোকান ঘেঁষে কলেজের খেলার মাঠের জায়গা দখল করে সেখানে একতলা একটি ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু করেন তিনি। বিষয়টি দেখতে পেয়ে শিক্ষকরা ভবন নির্মাণে বাধা দেন। তখন কয়েক ঘণ্টার জন্য কাজ বন্ধ রেখে আবারও নির্মাণ কাজ শুরু করেন তিনি। এতে বাধ্য হয়ে ঘটনাটি কলেজের ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দকে অবহিত করেন অধ্যক্ষসহ শিক্ষকরা।
লৌহজং উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারী বলেন, আমি এ কলেজের দোকানের ভাড়াটিয়া। দোকান-সংলঘ্ন এ স্থানটি ২০ বছর ধরে আমি ব্যবহার করছি। কলেজ কর্তৃপক্ষকে স্থাপনা করে দেওয়ার জন্য বলা হলেও তারা ব্যবস্থা নেয়নি। তাই নিজ টাকায় স্থাপনা করে বাথরুমসহ একটি রুম তৈরি করা হয়েছে। আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিষয়টি নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে।
কলেজ অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক বলেন, সম্প্রতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বাথরুমসহ আরও কিছু জায়গা দখলে নিয়ে ব্যক্তিগত অফিসকক্ষ নির্মাণ করেছেন।

মন্তব্য করুন