সোনারগাঁয়ে প্রবাসীর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯      

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের আষাঢ়িয়ার চর সেতুর নিচ থেকে তোফাজ্জল হোসেন বাবুল নামের এক সৌদি প্রবাসীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তোফাজ্জল হোসেন বাবুল নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জের তিতা হাজরা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলার

প্রস্তুতি চলছে।

বাবুলের ফুপাতো ভাই মিলন জানান, এক বছর পর সৌদি আরব থেকে বৃহস্পতিবার রাতে তোফাজ্জল হোসেন বাবুল দেশে ফেরেন। বাবুলের দুই মেয়েসহ তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার তাকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রিসিভ করে

নিজ বাড়ি নোয়াখালীর উদ্দেশে রওনা হন।

পথে মহাসড়কের আষাঢ়িয়ার চর সেতুর কাছে প্রকৃতির ডাকে তিনি গাড়ি থেকে নেমে যান। দীর্ঘ সময় পরও তিনি ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি করে স্ত্রী ও মেয়েরা বাড়িতে চলে যান। সকালে ব্রিজের নিচে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন এলাকাবাসী। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাবুলের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় তার কাছ থেকে মোবাইল ফোনসেট, টাকা, পাসপোর্টসহ স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়।

সোনারগাঁ থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ বলেন, ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে তার সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনে পরিবারের সঙ্গে কথা বলে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়। তবে তার মৃত্যু রহস্যজনক। প্রবাসীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশ উদ্ধারের সময় বাবুলের মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছিল। তার পেটের বাঁ পাশে একটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এসআই আরও জানান, মোবাইল ফোনে তার পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। লাশ

নেওয়ার জন্য পরিবারের সদস্যরা রওনা হয়েছেন।