ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লাঙ্গলবন্দ সেতু সংস্কার ঈদের দিন দুপুর থেকে ৩৬ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯      

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বন্দরের লাঙ্গলবন্দে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে। উপরের অংশের কাজের জন্য ঈদুল ফিতরের দিন দুপুর ১২টা থেকে পর দিন রাত ১২টা পর্যন্ত ৩৬ ঘণ্টা সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। ওই সময়ের জন্য বিকল্পপথে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চলাচলকারী ভারী ও হাল্ক্কা যানবাহনগুলোকে চলাচলের অনুরোধ করা হয়েছে। গত মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে ১ কোটি ৬২ লাখ ৯২ হাজার টাকা ব্যয়ে সেতুটির সংস্কার কাজ শুরু হয়। আগামী ২৫ জুন সংস্কার কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী আলীউল হোসেন বলেন, ঈদুল ফিতরের দিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সেতুর একপাশ দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। ঈদুল ফিতরের দিন রাত ১০টা থেকে পরের দিন সকাল ১০টা পর্যন্ত সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। ঈদের পরদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত সেতুর একপাশ দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। ঈদের পরের দিন রাত ১২টার পর থেকে সেতুর উভয় পাশ যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। আর ওই সময়ের জন্য এ রুটের সব ধরনের যানবাহনকে বিকল্প পথ ব্যবহারের অনুরোধ করা হচ্ছে। যেসব বিকল্প পথ ব্যবহার হবে তার মধ্যে ভারী যানবাহনগুলো কাঁচপুর-নরসিংদী-ভৈরব-সরাইল-ব্রাহ্মণবাড়িয়া-ময়নামতি রুট দিয়ে চলাচল করবে। আর হাল্ক্কা যানবাহনগুলো সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া-কাইকারটেক ব্রিজ-নবীগঞ্জ চৌরাস্তা-মদনপুর হয়ে চলাচল করবে।

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ইকলেকটিক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, আশা করি নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সেতুর সংস্কার কাজ শেষ করা সম্ভব হবে।