নম্বরের প্রলোভনে টাকা আদায়ের অভিযোগ দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে

নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজ

প্রকাশ: ২০ মে ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজে এইচএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা ও খাতা তৈরির জন্য প্রাইভেট কোচিংয়ের নামে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। জীববিজ্ঞান, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন বিজ্ঞান এবং গণিত পরীক্ষায় বেশি নম্বর পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে প্রতিটি বিষয়ের জন্য ৫০০ টাকা করে মোট ৩ হাজার টাকা প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে আদায় করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কয়েকজন পরীক্ষার্থী জানান, তোলারাম কলেজের শিক্ষক অধ্যাপক মৃদুল ও অধ্যাপক সাইদুল ব্যবহারিক পরীক্ষায় খাতা তৈরি ও বেশি নম্বর পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে প্রাইভেট কোচিং করতে আমাদের বাধ্য করেছেন। এ জন্য বিষয়প্রতি প্রথম ও দ্বিতীয়পত্রের জন্য ১ হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করে দিয়েছেন। এ টাকা না দিলে ব্যবহারিক পরীক্ষায় কম নম্বর দেওয়াসহ খাতায়ও স্বাক্ষর না করার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তাদের এমন হুমকিতে গরিব ও অসহায় শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছেন। প্রাইভেট কোচিং না করায় তারা অনেকেই চিন্তিত। ব্যবহারিক পরীক্ষায় তারা সবাই কম নম্বর পাবেন বলে আশঙ্কা করেছেন।

টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে অধ্যাপক মৃদুল বলেন, আমি কোচিং বাবদ কোনো টাকা নিচ্ছি না। কিছু শিক্ষার্থীর অভিভাবকের অনুরোধে পড়িয়েছি। তাই প্র্যাকটিক্যাল বাবদ তাদের কাছ থেকে সাবজেক্টপ্রতি ৫০০ থেকে ১ হাজার টাকা করে নিচ্ছি। সরকারি বিধিমালা অনুযায়ী এভাবে অর্থ আদায় করতে পারেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের অনুরোধে পড়াতেই পারি। সে বাবদ অর্থও নিতে পারি। তিনি বলেন, যারা আমার কাছে পড়েছে তারা আমার কাছে কোচিংও করতে পারে।