রূপগঞ্জে চাঁদা না পেয়ে কোম্পানির স্থাপনা ভাংচুর

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০১৯      

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত ২০ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে সন্ত্রাসীরা সি-শেল প্রপার্টিজ লিমিটেডের স্থাপনার পাকা দেয়াল ও সাইনবোর্ড ভাংচুর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে সি-শেল প্রপার্টিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপক জয়নাল আবেদীন বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজির মামলা করেন। এ ঘটনায় সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ পারভেজকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পারভেজ উপজেলার গুতিয়াবো এলাকার সিরাউদৌলা ওরফে দুলু মিয়ার ছেলে।

ওই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক জয়নাল আবেদীন জানান, উপজেলার গুতিয়াবো এলাকায় সি-শেল প্রপার্টিজ লিমিটেডের নির্মাণ কাজ চলছে। স্থানীয় সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ পারভেজ, বাবু, কিবরিয়া, বকুল, দুলাল মিয়া ও আমিরুল সি-শেল প্রপার্টিজ লিমিটেডের নির্মাণ কাজ চলাকালে তার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তাদের দাবিকৃত চাঁদা না দিলে নির্মাণ কাজ চালাতে দেবে না বলে হুমকি দেয় তারা। চাঁদা না দেওয়ায় এরই মধ্যে সন্ত্রাসী পারভেজসহ তার বাহিনীর সদস্যরা সি-শেল নির্মাণ কাজে বাধা দেয়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা তাদের নির্মাণাধীন ড্রেনের কাজ বন্ধ করে পাকা দেয়াল ও সাইনবোর্ড ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়ে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি করে। পরে পারভেজ ও তার বাহিনীর সদস্যরা জোরপূর্বক সি-শেল প্রপার্টিজের জমিতে তাদের নিজেদের একটি স্থাপনা নির্মাণ করে। এ সময় তিনিসহ কোম্পানির অন্যান্য কর্মচারী বাধা দিতে গেলে পারভেজ ও তার বাহিনীর সদস্যরা তাদের পিটিয়ে আহত করে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। পরে তিনি বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজি মামলা করেন।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামি পারভেজকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। পারভেজের বিরুদ্ধে রূপগঞ্জ থানায় হত্যা, ধর্ষণ, চাঁদাবাজিসহ হাফ ডজন মামলা রয়েছে। সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে  পাঠানো হয়েছে।