ফতুল্লায় সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ: ১৫ আগস্ট ২০১৯      

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে মো. রাকিব (২২) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। ঈদের দিন সোমবার ভোরে ফতুল্লার পাগলা রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাকিব

পেশায় ভাঙারি দোকানের কর্মচারী ছিল এবং সে ফতুল্লার নয়ামাটি মুসলিমপাড়া এলাকার মজিদ হাওলাদারের ভাড়াটিয়া নওশেদ বেপারীর ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শাকিল ও হৃদয় নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রাকিবের বন্ধু আবদুল্লাহ জানান, ফতুল্লার পাগলা বাজার থেকে কেনাকাটা শেষে রিকশাযোগে বাসায় ফিরছিলেন তারা। তাদের বহন করা রিকশা পাগলা রেলস্টেশন এলাকায় পৌঁছলে ওঁৎ পেতে থাকা একই এলাকার গিয়ার মানিকের নেতৃত্বে ৪-৫ জন রিকশার গতিরোধ করে। এর পর তারা তাকে (আবদুল্লাহ) চোর চোর বলে ধাওয়া দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাড়িয়ে দেয়। কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে ফিরে এসে আবদুল্লাহ রাকিবের রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

নিহত রাকিবের বাবা নওশেদ বেপারী বলেন, তিন সন্তানের মধ্যে রাকিবই তার একমাত্র ছেলে। ভাঙারির দোকানে কাজ করে সংসার চালাত সে। কেন, কী কারণে রাকিবকে খুন করা হয়েছে, সে সম্পর্কে তার কোনো ধারণা নেই। তবে খুনিদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তিনি।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, মূলত সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বেই হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে। ঘটনার প্রধান আসামি মানিক গ্রুপের একজনকে মারধর করেছিল রাকিব ও তার গ্রুপের সদস্যরা। এরই প্রতিশোধ নিতে মানিক ও তার গ্রুপের সদস্যরা পাল্টা হামলা চালিয়ে রাকিবকে হত্যা করে। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় শাকিল ও হৃদয় নামে দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।