স্ত্রীর আত্মহত্যার প্ররোচনায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৯

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

সোনারগাঁয়ে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে সালমা আক্তার শান্তা নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে নিহত গৃহবধূর বোন নাসরিন আক্তার বাদী হয়ে গৃহবধূর স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। গতকাল শুক্রবার সকালে এ মামলা করেন তিনি।

মামলায় নাসরিন উল্লেখ করেন, বরিশাল জেলার বানারীপাড়া থানার চাওলাকাঠি গ্রামের সুলতান হাওলাদারের ছেলে আরিফুল ইসলাম মিঠুর সঙ্গে একই এলাকার বড় চাওলাকাঠি গ্রামের ফারুক মোল্লার মেয়ে সালমা আক্তার শান্তার দুই বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তারা কাঁচপুর খাসপাড়ায় আফসার উদ্দিনের বাড়িতে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে। বিয়ের পর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দু'জনের মধ্যে পারিবারিক কলহ লেগেই ছিল। এই কলহের জের ধরে প্রায়ই তার বোনকে মিঠু মারধর করে বলত, তুই মরে গেলে আমি বেঁচে যেতাম, আমি আরেকটা বিয়ে করতাম। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে বিকেল ৩টার দিকে তার বোন সালমা আক্তার শান্তা গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তার ভাড়া বাসায় আত্মহত্যা করে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শান্তার লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, গৃহবধূ আত্মহত্যার ঘটনায় তার বোন বাদী হয়ে মিঠুর বিরুদ্ধে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা করেছেন।